ঢাকা, শুক্রবার 8 November 2019, ২৪ কার্তিক ১৪২৬, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

নানা আয়োজনে জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস পালিত  

 

স্টাফ রিপোর্টার : নানা আয়োজনে মহান বিপ্লব ও সংহতি দিবস পালিত হয়েছে। ঐতিহাসিক ৭ই নবেম্বর স্মরণে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছে বিএনপি নেতাকর্মীরা। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় শেরে বাংলা নগরে জিয়ার মাজারে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নেতৃত্বে স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, আবদুল মঈন খান, সেলিমা রহমানসহ কর্মীরা ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।  

দলের ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, মোহাম্মদ শাহজাহান, শামসুজ্জামান দুদু, এজেডএম জাহিদ হোসেন, আহমেদ খান আজম, মশিউর রহমান, হাবিবুর রহমান হাবিব, গোলাম আকবর খন্দকার, সিরাজউদ্দিন আহমেদসহ কেন্দ্রীয় ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরাও এসময় উপস্থিত ছিলেন। পরে তারা সেখানে মোনাজাতে অংশ নেন। 

এ সময় ফখরুল বলেন, ৭ নবেম্বরের চেতনায় জনগণের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা হবে বলেও ঘোষণা দেন তিনি।  এর আগে দিনটি উপলক্ষে সকালে নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে উত্তোলন করা হয় দলীয় পতাকা। রঙিন পোস্টারও প্রকাশ করে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনগুলো। 

প্রসঙ্গত, ১৯৭৫ সালের এই দেশি-বিদেশি প্রতিক্রিয়াশীল শক্তির চক্রান্ত ও ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে সিপাহী-জনতার সস্মিলিত বিপ্লবে দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব সুরক্ষিত হয়। সেনা ছাউনিতে বন্দি মেজর জিয়াউর রহমানকে মুক্ত করে নিয়ে আসেন সাধারণ সিপাহীরা। অর্পণ করেন রাষ্ট্র পরিচালনার ভার। যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ পুনর্গঠনে আত্মনিয়োগ করেন তিনি। উন্নয়ন ও উৎপাদনের রাজনীতি প্রবর্তিত হয় দেশে। শাসক দলের সীমাহীন অনিয়ম দুর্নীতি ও লুটপাটে তলাবিহীন ঝুড়িতে পরিণত হওয়া বাংলাদেশ বিশ্বের বুকে নতুন পরিচয় ও আত্মমর্যাদায় প্রতিষ্ঠিত হয়। অসামান্য জনপ্রিয়তা পাওয়া রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান এক পর্যায়ে গঠন করেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি। 

বরিশাল : বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট মজিবর রহমান সরোয়ার বলেছেন, দেশে আজ মানুষের নিজস্ব মতপ্রকাশের স্বাধীনতা ও গণতন্ত্র নেই বলেই জনগণ আইনের শাসন থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। বৃহস্পতিবার (৭ নবেম্বর) বরিশাল মহানগর বিএনপির এক আলোচনাসভায় সভাপতির বক্তব্যে একথা বলেন তিনি। ৭ নবেম্বর উপলক্ষে শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত প্রেসক্লাবে এ আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়।

মজিবর রহমান সরোয়ার বলেন, ২০১৮ সালে রাষ্ট্রযন্ত্র ব্যবহার করে রাতের আঁধারে ভোট গ্রহণ করে যে দুর্নীতি করা হয়েছে, তার নজির আর কোথাও নেই। এর মাধ্যমে জনগণের ভোটের অধিকার হরণ করেছে আওয়ামী লীগ। এর আগে সকাল ১০টায় দক্ষিণ জেলা বিএনপি’র উদ্যোগে নগরীর সদর রোডের দলীয় কার্যালয়ে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। দক্ষিণ জেলা বিএনপি’র সভাপতি এবায়েদুল হক চাঁন এতে সভাপতিত্ব করেন।

আলোচনা সভা আজ  

জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষ্যে রাজধানীর মহানগর নাট্য মঞ্চে জনসভা করবে বিএনপি। আজ শুক্রবার বাদ জুমা থেকে এই জনসভা শুরু হবে। জনসমাবেশ করার জন্য ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) থেকে অনুমতি পেয়েছে বিএনপি। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিএনপির ঢাকা বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ।

গতকাল বুধবার দুপুরে ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলামের সাথে জনসমাবেশের অনুমতির বিষয়ে সাক্ষাত করেন বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি ও সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ