ঢাকা, শনিবার 9 November 2019, ২৫ কার্তিক ১৪২৬, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

অক্টোবর মাসের রাজনৈতিক সন্ত্রাস

মুহাম্মদ ওয়াছিয়ার রহমান : গত অক্টোবর মাসে সরকার দলীয় বিভিন্ন অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনে নানা ধরনের শুদ্ধি অভিযান চলেছে। অন্য দিকে বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসা ও মুক্তির দাবিতে রাজনৈতিক মাঠে সক্রিয় থাকে বিএনপি। গত মাসে ১১৬টি রাজনৈতিক ঘটনার তথ্যে নিহতের সংখ্যা ৭। এই ৭ জনের ৩ জন খুন হয় আওয়ামী লীগের হাতে, ছাত্রলীগের হাতে ৩ এবং জেএসএস-এর হাতে ১ জন। এ মাসে রাজনৈতিক সংশ্লিষ্টতায় প্রাপ্ত তথ্যে আহত হয় ২৮৫ জন এবং গ্রেফতার অনেক বেশি হলেও ১৬১ জনের তথ্য পাওয়া গেছে বাকীদের পরিচয় প্রকাশিত হয়নি, গ্রেফতারকৃতরা অধিকাংশই বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতা-কর্মী এবং দন্ডপ্রাপ্ত ৩৪ জন, এই ৩৪ জনের আওয়ামী লীগের ৬, ছাত্রলীগের ২০, যুবলীগের-৪, স্বেচ্ছাসেবক লীগের ১ এবং বিএনপির ৩ জন। প্রাপ্ত তথ্যে অক্টোবর মাসে যারা নিহত হয়- (১) রাজবাড়ী সদরে আওয়ামী লীগ দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ডাঃ রেজাউল করীম আবু নিহত হয়, (২) গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে আওয়ামী লীগ দু’গ্রুপের সংঘর্ষের জেরে নদীতে ফেলে শাহ আলমকে হত্যা করা ও (৩) ফরিদপুরের ভাঙ্গায় আওয়ামী লীগ দু’গ্রুপের সংঘর্ষে যুবলীগ নেতা নাসির মাতুব্বর নিহত (৪) সিরাজগঞ্জের কাজীপাড়ায় আব্দুর রউফ সাঈদ হত্যা মামলায় ছাত্রলীগ নেতা আটক, (৫) ঢাকার বুয়েটে ছাত্রলীগের হাতে মেধাবী নামাজী ছাত্র আবরার ফাহাদ খুন ও (৬) ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে ছাত্রলীগের হাতে জাহিদুল ইসলাম নামে এক ছাত্র খুন এবং (৭) রাঙ্গামাটি সদরে জেএসএস-এর হাতে অপহরণ হয়ে বিএনপি নেতা দ্বীপময় তালুকদার খুন হয়।
আওয়ামী লীগ ঃ ৩ অক্টোবর গাজীপুরের কাপাসিয়া ত্রিমোহনী চালাবাজার থেকে মদসহ কড়িহাতা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক তাজুল ইসলাম আমান, ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি রেজাউল হক মোল্লা কাইউম ও উপজেলা ছাত্রলীগ সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক জুয়েল রানাকে আটক করে পুলিশ। ৪ অক্টোবর ফেনীর পরশুরামের দূর্গাপুরে জেলা ছাত্রদল সহ-সভাপতি মনির আহম্মেদের হাত-পা ভেঙ্গে দেয় সন্ত্রাসীরা। বিএনপি ও ছাত্রদল ঘটনার জন্য আওয়ামী লীগকে দায়ী করে। ফেনীর সোনাগাজীতে চর মজলিশপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি নূরনবী মাষ্টার চর মজলিশপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিধি বর্হিভূতভাবে সদস্য নির্বাচন করায় উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা ওয়াহিদুর রহমান স্কুলে উক্ত বিষয় তদন্তে গেলে তাকে ধাক্কা দিয়ে ভেলে দেয় এবং তার হাতের কাগজপত্র ছিড়ে ফেলে। মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে কোলাপাড়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের পকেট কমিটি গঠন নিয়ে সমাবেশ ও বিক্ষোভ করে ক্ষুব্ধ গ্রুপ। বগুড়ার শাহজাহানপুরে শাহবন্দেগী কানাইকান্দর উচ্চ বিদ্যালয়ে ইউনিয়নের ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ বর্ধিত সভায় দু’গ্রুপের সংঘর্ষে মোহাম্মদ আলী আগলু ও আবু সাঈদসহ ১০ জন আহত হয়।
৭ অক্টোবর বগুড়ার শাহজাহানপুরে বেসরকারি শিল্প প্রতিষ্ঠান ইয়ান গ্রুপের উন্নয়ন কাজের মালামাল সরবরাহের টেন্ডার ভাগাভাগি নিয়ে আওয়ামী লীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের মধ্যে সংঘর্ষে কামরুল আলম হিরোকে কুপিয়ে জখম করা হয়। বরিশালের হিজলায় টুমচর গ্রামে যুবক আজম বেপারীকে ব্যাপক মারধর করে মলমুত্র খাওয়ায় আওয়ামী লীগ হরিনাথপুর ইউনিয়ন নেতা মাহবুব সিকদারের নেতৃত্বে বেশ কয়েকজন। ৮ অক্টোবর মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ীর আব্দুল্লাহপুর গ্রামে আওয়ামী লীগ দু’গ্রুপে সংঘর্ষ ও ভাংচুর করা হয়। আওয়ামী লীগ আব্দুল্লাহপুর ইউনিয়ন সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন বেপারী নয়ন গ্রুপ ও দেলোয়ার মৃধা গ্রুপের মধ্যে এই সংঘর্ষ হয়। নাটোরের নন্দীগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আনিছুর রহমান এবং তার সহযোগী নেশা খোর নেতাদের বহিষ্কারের দাবীতে বিক্ষোভ করে আওয়ামী লীগ ও তাদের সহযোগী সংগঠন। ফেনীর দাগনভূঁঞা সদর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ উপজেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি বেলায়েত হোসেন স্বপনের নির্বাচনী আচরণবিধি লংঘনের অভিযোগ করে ৯ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি আব্দুল কুদ্দুস মিয়া টুকু। 
৯ অক্টোবর ঠাকুরগাঁওয়ে হরিপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় দু’গ্রুপের সংঘর্ষে এনামুল হক, জহিরুল ইসলাম, আবুল কালাম আজাদ রয়েল ও মহিরুল ইসলামসহ ৮ জন আহত হয়। উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক জিয়াউল হাসান মুকুল গ্রুপ ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক এস.এম আলমগীর গ্রুপের মধ্যে এই সংঘর্ষ হয়। নীলফামারীর সৈয়দপুরে পৌর আওয়ামী লীগ নেতা হিটলার চৌধূরী ভুলুকে দলীয় শৃংখলা ভঙ্গের দায়ে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হয়। নাটোরের সিংড়ায় যাত্রী ছাউনী গত ৩ বছর ধরে আওয়ামী লীগ উপজেলা যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মিনহাজ উদ্দিন সরদার ধানের গোলা করে দখলে রাখে। রাজবাড়ীর দৌলদিয়ায় দলীয় কোন্দলে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ অফিস ভাংচুর করা হয়। পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত নূরু কাজীকে আটক করে।
১১ অক্টোবর রাজশাহী শহরের ফুলতলা এলাকায় বালু ব্যবসাকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ দু’গ্রুপের সংঘর্ষে স্বেচ্ছাসেবক লীগ আহবায়ক জুবায়ের হাসান জনি ও যুবলীগ কর্মী সুজনসহ আহত ৩ জন। আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত নেতা আব্দুস সাত্তার গ্রুপ ও জুবায়ের হাসান জনি গ্রুপের মধ্যে এই সংঘর্ষ হয়। নেত্রকোনার আটপাড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিএনপির চেয়ারম্যান প্রার্থী তৌছিফুল ইসলাম খানের প্রচারণায় পাঁচগজ মোড়ে আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ ও যুবলীগের হামলায় প্রার্থী তৌছিফুল ইসলাম খান, আসিফ ইকবাল ও সাদেকসহ ৫ জন আহত হয়। ফরিদপুরের বোয়ালমারী সাতৈর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ৮ নং ওয়ার্ড সম্মেলনে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে নান্নু হাওলাদার, আজিজুল হক, মাহবুব ফকির ও মোখলেছ শেখ আহত হয়। পুলিশ আব্দুর রাজ্জাক, আব্দুল মান্নান ও পান্নু মোল্লাকে আটক করে পুলিশ। আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল মান্নান গ্রুপ ও আব্দুর রাজ্জাক গ্রুপের মধ্যে এই সংঘর্ষ হয়। ঢাকার মোহাম্মদপুর থানা আওয়ামী লীগ সাবেক সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিজানকে ভারতে পালানোর সময় শ্রীমঙ্গল থেকে আটক করে র‌্যাব। 
১৪ অক্টোবর শরীয়তপুর সদরে চিতলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ দু’গ্রুপের সংঘর্ষে জামাল খান, নেছার বেপারী, মফেজ সরদার, মজিবর সরদার, ইমান ফরাজী, জুলহাস খান, খবির বাঘা, রেহানা বেগম, স্বর্ণা, দবির খান, ওমর খান, শফিক বেপারী, আব্দুল মান্নান বেপারী, এসকেন খান, হবি হাওলাদার, মজিবর হাওলাদার, দৌলত খান, সুজন হাওলাদার, সুমন হাওলাদার, হাবিব হাওলাদার, বাদশা সরদার ও জিয়া হাওলাদারসহ ৩০ জন আহত হয়। উপজেলা আওয়ামী লীগ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুস সালাম হাওলাদার গ্রুপ ও চিতলিয়া ইউনিয়ন সভাপতি হারুন হাওলাদার গ্রুপের মধ্যে এই সংঘর্ষ হয়। রাজবাড়ী সদরে দেবগ্রাম ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিল অধিবেশনে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ডাঃ রেজাউল করীম আবু নিহত এবং অপর ১০ জন আহত হয়। আওয়ামী লীগ নেতা ও ইউপি চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান গ্রুপ এবং সাবেক চেয়ারম্যান আতর আলী গ্রুপের মধ্যে এই সংঘর্ষ হয়। ঢাকার পুরানা এলাকা থেকে যুব মহিলা লীগ সহ-সভাপতি আসমা আক্তার ও তার পরিবার ক্রাইম রিপোর্টার সমবায় সমিতি অফিসে এক সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করে আওয়ামী লীগ নেতা ও শহীদ কমিশনারের ক্যাডাররা তাদের মারধর এবং তার স্বামীকে নানাভাবে হয়রানি করে আসছে। যশোরের কেশবপুর মাগুরখালী বাজারে আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল কুদ্দুসের ঘর থেকে ১৩ বস্তা সরকারি চাল আটক করে কর্তৃপক্ষ।
১৫ অক্টোবর সাতক্ষীরা সদরে বাস টার্মিনাল দখল নিয়ে আওয়ামী লীগ দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ৫ জন। জেলা আওয়ামী লীগ যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আবু আহমেদ গ্রুপ ও অনির্বাচিত শ্রমিক লীগ সভাপতি সাইফুল ইসলাম বাবু গ্রুপের মধ্যে এই সংঘর্ষ হয়। ১৬ অক্টোবর গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উত্তর গঙ্গারামপুরে গোহালা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ সম্মেলনে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ১০ জন আহত হয়। আওয়ামী লীগ নেতা সফিকুল ইসলাম গ্রুপ ও লিটন বয়াতী গ্রুপের মধ্যে এই সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষের পরে শাহ আলম নামে একজনের লাশ হাত-পা বাঁধা অবস্থায় পাওয়া যায়। ১৯ অক্টোবর নরসিংদীতে আওয়ামী লীগ নেত্রী ও  মহিলা আসনের এমপি তামান্না নুসরত বুবলী অন্যকে দিয়ে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে বিএ পাশ পরীক্ষায় প্রক্সি দিতে গিয়ে ধরা থেয়ে তার পরীক্ষা বাতিলসহ তাকে বহিষ্কার করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। ২০ অক্টোবর ফরিদপুরের ভাঙ্গায় কুমারখালী গ্রামে আওয়ামী লীগ দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ঘারুয়া ইউনিয়ন যুবলীগ যুগ্ম-সম্পাদক নাসির চিকিসৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। আওয়ামী লীগ নেতা মনিরুজ্জামান গ্রুপ ও  আবু তারা মাতুব্বর গ্রুপের মধ্যে ১৯ অক্টোবর এই সংঘর্ষ হয়। ঢাকার দোহারে রাইপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ যুগ্ম-আহবায়ক ঝিন্টু বেপারীর স্ত্রী তাহমিনা আক্তারকে ২টি পিস্তল, ২টি ম্যাগজিন ও ২ রাউন্ড গুলিসহ আটক করা হয়। পাবনা সদরের সাদুল্লাপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের কমিটি গঠন নিয়ে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আব্দুল কুদ্দুস মুন্সী, আমির হোসেন মিলন, সাগর, রুবেল, হারুন, টিপু সুলতান ও আনোয়ার হোসেন আহত হয়। আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল কুদ্দুস মুন্সী গ্রুপ ও অধ্যাপক আলাওল কবীর জয় গ্রুপের মধ্যে এই সংঘর্ষ হয়। 
২১ অক্টোবর ঝিনাইদাহ সদরের হলিধানী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রশীদ মিয়া এবং সাহেব আলীকে যুদ্ধাপরাধ মামলায় নারায়নপুর ত্রিমোহনী থেকে আটক করে পুলিশ। সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে আওয়ামী লীগ নেতা ও পলাশ ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল কাইউমের ছেলে সাইদুর রহমান রাজিবের হাতে উপজেলার আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ আখতারুজ্জামান আখন্দ আহত হওয়ায় আব্দুল কাইউমকে আটক করে পুলিশ। ২২ অক্টোবর ঢাকার গেন্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি এনামুল হক এনু এবং তার ভাই থানা আওয়ামী লীগ যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক রূপন ভূঁইয়া, দুই সহযোগী হারুন-অর-রশীদ ও আবুল কালাম আজাদের নামে দুর্নীতির মামলা অনুমোদন দেয় দুদক। ২৩ অক্টোবর ঝিনাইদাহের মহেশপুরে নেপা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান শামসুল হককে আদালত অবমাননার দায়ে ১ দিনের কারাদন্ড দেয় আদালত। 
২৪ অক্টোবর ফেনীর সোনাগাজীর আলোচিত ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রসার ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যা মামলায় আওয়ামী লীগ উপজেলা সাবেক সভাপতি রুহুল আমীন, পৌর আওয়ামী লীগ সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাকসুদুল আলম, ছাত্রলীগ মাদ্রাসা কমিটির সাবেক সভাপতি শাহাদাত হোসেন শামীম, ছাত্রলীগ কর্মী জোবায়ের, চরচান্দিয়া ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগ সাবেক সভাপতি জাভেদ হোসেন, ছাত্রলীগ কর্মী শামীম, ইফতেখার উদ্দিন রানা, মহিউদ্দিন শাকিল ও এমরান হোসেন মামুনসহ আওয়ামী পরিবারের ৮-৯ জনসহ ১৬ জনকে ফাঁসি দেয় আদালত। [চলবে]

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ