ঢাকা, শুক্রবার 22 November 2019, ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

‘খয়রাতির পাঁচ একর জমি চাই না’:ওয়াইসি

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: ভারতের বিতর্কিত রাম মন্দির নির্মাণের যে রায় দেশটির সুপ্রিম কোর্ট দিয়েছেন, তা প্রত্যাখ্যান করেছেন সে দেশের মুসলিম নেতা অল ইন্ডিয়া মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলেমিন (এআইএমআইএম) প্রেসিডেন্ট আসাদউদ্দিন ওয়াইসি। তার দাবি, সুপ্রিম কোর্টের রায়ে বাস্তব সত্যের জয় হয়নি।

ওয়াইসি বলছেন, সুপ্রিম কোর্ট মুসলিমদের যে খয়রাতির পাঁচ একর জমি দিতে চেয়েছেন, তা চাই না। ওয়াইসির দাবি, এমনি মানুষের কাছে চাইলেই মুসলিমরা পাঁচ একর পেয়ে যাবে। সরকারের খয়রাতির প্রয়োজন নেই।

হায়দরাবাদের এই সাংসদের বক্তব্য, আমরা আমাদের আইনি অধিকারের জন্য লড়ছি। ভারতের মুসলমানদের এতটা খারাপ দিনও আসেনি যে খয়রাতির জমি নিতে হবে। মুসলিম বোর্ড কি সিদ্ধান্ত নেবে সেটা তাদের সিদ্ধান্ত। আমার ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত আমাদের এই পাঁচ একরের প্রস্তাব খারিজ করা উচিত।

এদিকে, বাবরি মসজিদ মামলার রায়ে বিতর্কিত জমি পাচ্ছেন হিন্দুরাই। সেখানে তৈরি হবে রাম মন্দির। অন্যদিকে, বিতর্কিত জমি বাদে অযোধ্যায় পাঁচ একর জমি দেওয়া হবে সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডকে। সেখানে তৈরি হতে পারে মসজিদ। সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডের আইনজীবী জাফারিয়াব জিলানি বলেন, আমরা এই রায়ে সন্তুষ্ট নই। এতে অনেক ভুল তথ্য আছে। রিভিউ করা যাবে কিনা, সেটা আমরা আলোচনা করব। তারপরই পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

রায় ঘোষণার আগে সব রাজ্যকে সতর্ক করেছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। অযোধ্যাসহ গোটা উত্তরপ্রদেশ মুড়ে ফেলা হয়েছে কড়া নিরাপত্তার চাদরে। এ ছাড়াও নজর রাখতে বলা হয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে।

উল্লেখ্য, কাশ্মীরে মুসলমানদের স্বায়ত্বশাসন কেঁড়ে নেয়ার রেশ কাটতে না কাটেতই বাবড়ি মসজিদের জায়গায় কথিত রাম মন্দির নির্মাণের রায় দিল দেশটির সুপ্রিম কোর্ট।

১৯৯২ সালের ৬ জুন কয়েকটি সাম্প্রদায়িক দল ১৫ শতকে মুঘল সম্রাট বাবরের আমলে নির্মিত ঐতিহাসিক মসজিদটি ধ্বংস করে দেয়।

ডিএস/এএইচ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ