ঢাকা, মঙ্গলবার 26 November 2019, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

আদর্শ ইসলামী মিশন মহিলা কামিল এম.এ মাদরাসায় দাখিল পরীক্ষার্থীদের জন্য দোয়া মাহফিল

গত শনিবার ৩/১৪, ব্লক-জি, লালমাটিয়া, কাজী নজরুল ইসলাম রোড, মোহাম্মদপুর ঢাকাস্থ আদর্শ ইসলামী মিশন মহিলা কামিল এম.এ মাদরাসায় দশম শ্রেণির ছাত্রীদের ফেয়ারওয়েল উপলক্ষে, নবম শ্রেণির ছাত্রীদের উদ্যোগে এক বিরাট দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে দোয়া করেন আল্লামা সৈয়দ মাহবুবুর রহমান জৈনপুরী পীর সাহেব। সভাপতিত্ব করেন আলহাজ্ব শফিকুল ইসলাম চৌধুরী (সাবেক জি.এম ডেসকো)। প্রধান অতিথি, আলহাজ্জ হাফেজ মাওলানা ড. এইচ.এম. রমজান পাশা। প্রধান বক্তা, অত্র কমপ্লেক্সের উপদেষ্টা মাওলানা ইজহারুল হক সাহেব (প্রিন্সিপাল, গাউছিয়া ফাজিল মাদ্রাসা)। বিশেষ অতিথি, অত্র কমপ্লেক্সের মহা পরিচালক পীরজাদা আলহাজ্জ সৈয়দ সিরাজ-উদ-দৌলা। বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মো. আমিন ও আলহাজ্জ সৈয়দ আনিছুর রহমান প্রমুখ। মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা ক্বারী রওশন আরা নূরীর পরিচালনায় এবং সহকারী অধ্যাপক মাওলানা তোজাম্মেল হক সাহেবের উপস্থাপনায় পরিচালিত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন জৈনপুরীর খলিফা মাওলানা আব্দুস সবুর কামাল। মাওলানা হাফেজ অলিউল্লাহ। মাওলানা মাঈন উদ্দিন ও কমপ্লেক্সের জয়েন্ট সেক্রেটারী মো. হুমায়ুন কবির সাহেব প্রমুখ। প্রধান অতিথি  রমজান পাশা তাহার বক্তব্যে বলেন, যাহারা দাখিল পাস করার পরে অত্র মাদরাসায় পুনরায় আলিম-এ ভর্তি হবে এবং বহিরাগতদেরও প্রতি মাসে এক হাজার টাকা করিয়া অনুদান দেবেন। মহাপরিচালক পীরজাদা সৈয়দ সিরাজ-উ-দৌলা সাহেব তাহার মূল্যবান বক্তব্যে বলেন, আমার পিতা জৈনপুরী পীর সাহেব কেবলা জীবনের সমস্ত আয় অত্র বিশাল প্রতিষ্ঠানের পিছনে ব্যয় করে আজ তিনি নিঃস্ব। বাবা এতিম দরিদ্রদের সেবায় সদা সর্বদা লিপ্ত রয়েছেন। তিনি  শিক্ষাদীক্ষা ও মানব সেবায় আত্মনিয়োগ করেছেন। এহেন কষ্টে প্রতিষ্ঠিত প্রতিষ্ঠানকে ক্ষতিগ্রস্থ করার জন্য ২/১ জন আলেম নামধারী ব্যক্তি হীন স্বার্থে সদাসর্বদা প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তাই হৃদয়ে খুব কষ্ট ও আঘাত লাগে যে, সামনে জ্বি হুজুর, পিঁছনে গিবত। আপনারা জানেন, সূরা হুজরাতে আছে গিবত করা আর মরা ভাইয়ের গোস্ত খাওয়া সমান গুনাহ। এই মহা পাপ থেকে আপনারা বিরত থাকুন। এই প্রতিষ্ঠানের হাজার হাজার এতিম দরিদ্র সন্তানেরা এলমে দ্বীন শিখে আদর্শ জীবন গঠন করছেন। আপনারা একজন এতিমের হকও যদি নষ্ট করেন মুক্তি পাবেন না। শেষে পীর সাহেব অত্র মাদরাসায় যারা ভর্তি হবে তাদের অন্য বস্ত্র ফ্রি করে দেবেন, ঘোষণা দিয়ে মোনাজাত করেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ