ঢাকা, রোববার 21 October 2012, ৬ কার্তিক ১৪১৯, ৪ জিলহজ্জ ১৪৩৩ হিজরী
Online Edition

বেতন বোনাসের দাবিতে মানববন্ধন করেছে হলমার্ক গ্রুপের শ্রমিকরা

স্টাফ রিপোর্টার : সোনালী ব্যাংকের ঋণ জালিয়াতির অভিযোগের মুখে থাকা হলমার্ক কারখানার শ্রমিকরা বকেয়া বেতন ও ঈদ বোনাসের দাবিতে ঢাকায় মানববন্ধন করেছে। হলমার্ক গ্রুপের শ্রমিকরা ঈদের আগে বেতন বোনাস দেয়া না হলে কঠোর আন্দোলনে যাওয়ার ঘোষণা দেন। গতকাল শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এই কারখানার কয়েকশ' শ্রমিক মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে। জাতীয় গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি আমিরুল হক আমিনও তাদের দাবির সঙ্গে একাত্মতা জানান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন হলমার্ক শ্রমিক ইউনিয়নের নেতা জুলেখা আক্তার, রফিকুল ইসলাম, হোসেন মিয়া প্রমুখ।

জুলেখা আক্তার নামে হলমার্কের এক পোশাক শ্রমিক বলেন, সাত মাস ধরে ৩ হাজার ৮০০ টাকা বেতনে চাকরি করে আসছেন তিনি। এই টাকা দিয়েই তার সংসার চলে। কিন্তু সেপ্টেম্বর মাসের বেতন ও ওভারটাইমের টাকা পাইনি। বর্তমান মাসের টাকা ও ঈদ বোনাস পাব কি না, তাও জানে না এই নারী শ্রমিক। সোনালী ব্যাংক থেকে অনিয়মের মাধ্যমে আড়াই হাজার কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে হলমার্ক গ্রুপের চেয়ারম্যান জেসমিন ইসলাম, ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) তানভীর মাহমুদ বর্তমানে কারাগারে রয়েছেন। কিন্তু তাদের সম্পদ ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। সেই সম্পদ থেকে সরকার তাদের বেতন দিতে পারে। জেসমিন ও তানভীরসহ পোশাক রফতানিকারক ঐ প্রতিষ্ঠানের সাত কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন। হলমার্ক গ্রুপের অনিয়মের পর এর কারখানার শ্রমিকরা অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়েন। তারা এর আগে কারখানাস্থল সাভারে বিক্ষোভও করেন। সরকার তাদের সহায়তা না করে উল্টো পুলিশ দিয়ে হামলা করছে।

জুলেখা বলেন, সাভারের উলাইল এলাকায় দুই হাজার টাকায় আরও কয়েকজন সহকর্মীর সঙ্গে কক্ষ বাড়ি ভাড়া নিয়ে থাকেন তিনি। গত মাসের ভাড়া দিতে না পারায় এবং হলমার্ক গার্মেন্ট বন্ধ হয়ে যাবে এমন আশঙ্কায় বাড়ির মালিক ঘর ছেড়ে দিতে চাপ দিচ্ছে। এ অবস্থা পরিবর্তন না হলে তারা ঈদের আগে কঠোর আন্দোলনে যেতে বাধ্য হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ