মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার দাবি

দেশে চলমান পরিস্থিতি নিয়ে ঢাবির ২৫০ শিক্ষকের উদ্বেগ

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার : দেশে চলমান পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএনপি-জামায়াতপন্থী সাদা দলের ২৫০ জন শিক্ষক। একই সাথে তারা ‘দৈনিক আমার দেশ' পত্রিকার সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে দায়ের করা সকল ষড়যন্ত্রমূলক মামলা প্রত্যাহারের জোর দাবি জানিয়েছেন।

গতকাল সোমবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাদা দলের আহবায়ক ও কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. সদরুল আমিন স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ দাবি জানানো হয়।

বিবৃতিতে শিক্ষকরা বলেন, দেশে বিরাজমান নৈরাজ্যকর রাজনৈতিক পরিস্থিতি, ব্যাপক হতাহতের ঘটনা, ভিন্নমত দলনের উদ্দেশ্যে আইন-শৃক্মখলা বাহিনীকে জনগণের প্রতিপক্ষ করা এবং শহীদ মিনার ও জাতীয় পতাকার অবমাননার ঘটনা বাংলাদেশের ইতিহাসে কলঙ্ক রচনা করেছে। তারা বলেন, এই চলমান পরিস্থিতির জন্য আমরা গভীর উদ্বেগ প্রকাশ ও নিন্দা জানাচ্ছি। এছাড়া ইসলাম ধর্ম ও মহানবী হযরত মোহাম্মদ (সা.) সম্পর্কে কূরুচিপূর্ণ মন্তব্য করে দেশের শতকরা প্রায় ৯০ ভাগ মানুষের ধর্মবিশ্বাস ও অনুভূতিকে আহত করার অপপ্রয়াসও বাঙালী জাতির মনসিকতাকে নিচু পর্যায়ে পৌছিয়ে দিয়েছে। প্রত্যেক ধর্মপ্রাণ মানুষেরই তার নিজ ধর্ম, সৃষ্টিকর্তা এবং সৃষ্টিকর্তার বাণীবাহকদের প্রতি গভীর বিশ্বাস, আবেগ ও ভালবাসা থাকে। এটি আঘাতপ্রাপ্ত হলে সংশ্লিষ্টদের মনে প্রতিক্রিয়া হওয়াটাই স্বাভাবিক। কোন ব্যক্তি বা গোষ্ঠী কর্তৃক মানুষের ধর্মীয় মূল্যবোধ ও বিশ্বাসকে অসম্মান করা অত্যন্ত গর্হিত কাজ। তারা এর তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানান এবং  রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা ও গণতান্ত্রিক পরিবেশ রক্ষার স্বার্থে এসব ঘটনায় দায়ী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য জোর দাবি করেন।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, বিভিন্ন মহল থেকে কয়েকটি গণমাধ্যমের বিরুদ্ধে উস্কানিমূলক বক্তব্য দেয়া হচ্ছে। জাতীয় দৈনিক আমার দেশ-এর ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমান পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে বারংবার হুমকি ও মামলার স্বীকার হচ্ছেন। আমরা এরও তীব্র প্রতিবাদ এবং তার বিরুদ্ধে করা সব মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানাই। একই সাথে জাতীয় ঐক্য ও সংহতি রক্ষার স্বার্থে সরকার এবং দল-মত নির্বিশেষে সংশ্লিষ্ট সকলের কাছে যৌক্তিক, দায়িত্বশীল, সংযত ও সহনশীল আচরণ কামনা করি।