ঢাকা, সোমবার 19 August 2019, ৪ ভাদ্র ১৪২৬, ১৭ জিলহজ্ব ১৪৪০ হিজরী
Online Edition
  • হুমায়ূন আহমেদ এর ‘চোখ’

    এ কে আজাদ : ‘আজ বাদ আছর খেজুর কাঁটা দিয়ে মতি মিয়ার চোখ তুলে ফেলা হবে। চোখ তুলবে নবীনগরের ইদরিস। এ কাজ সে আগেও একবার করেছে।’- চমৎকার শুরু! না, বহমান প্রবন্ধের শুরু না। শুরু ‘চোখ’। সমকালীন বাংলা সাহিত্যের বহুল পঠিত লেখক, গল্পকার ও ঔপন্যাসিক হুমায়ূন আহমেদ এর ছোট গল্প চোখ। অসম্ভব রকমের জনপ্রিয় একটি ছোট গল্প। ছোট গল্পের কথা উঠলেই মনের পাতায় ভেসে ওঠে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, তাঁর ছোট গল্পের সংজ্ঞাÑ ছোট প্রাণ, ছোট ব্যথা ... ...

    বিস্তারিত দেখুন

  • সেবাদাস

    সেবাদাস

    হেলাল আরিফীন : জুতোজোড়া খুবই মনোযোগ দিয়ে পালিশ করছে সেবাদাস। নিজের সবটুকু মনন ঢেলে, অনেক যত্ন করে। অনেকটা সময় ধরে ... ...

    বিস্তারিত দেখুন

  • বহুকষ্টে পাওয়া ইসলাম

    অনেকেই আমার কাছে আমার ইসলাম গ্রহণের ব্যাপারে জানতে চান এবং আমি তাদেরকে খুব সংক্ষেপেই আমার ঘটনাটা বলে থাকি। কিন্তু আজ আমি আপনাদের সাথে আমার কাহিনীর পুরোটাই শেয়ার করতে চাই কিভাবে আমি এই সত্য ও সুন্দরের ধর্ম ইসলামের সুশীতল ছায়া তলে আশ্রয় গ্রহণ করলাম।প্রায় আট বছর আগের কথা বলছি;  হঠাৎ একদিন এক অদ্ভুত রকমের স্বপ্ন দেখলাম; বিশ্বাস করুন, একেবারেই অদ্ভুত এক স্বপ্ন; স্বপ্নটা কোনভাবেই ... ...

    বিস্তারিত দেখুন

  • গাজীপুরের নুহাশপল্লীতে হুমায়ূন আহমেদের জন্মদিন পালিত

    গাজীপুর সংবাদদাতা : গাজীপুরের ‘নুহাশপল্লী’তে মরহুম কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের ৬৮তম জন্মদিন নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে রবিবার পালিত পালিত হয়েছে। জন্মদিনে জনপ্রিয় এ লেখককে শ্রদ্ধা জানাতে তার কবরের পাশে নামে মানুষের ঢল। হুমায়ুন আহমেদের জন্মদিন উপলক্ষে শনিবার রাতে গাজীপুর সদর উপজেলার পিরুজালী গ্রামে হুমায়ুন আহমেদের হতে গড়া ‘নুহাশ পল্লী’তে  মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করা ... ...

    বিস্তারিত দেখুন

  • হেটে হেটে নুহাশ পল্লী যাচ্ছে হিমু আর রুপার দল

    অনলাইন ডেস্ক : জনপ্রিয় কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের মৃত্যু হয়েছিল ক্যান্সারে। তার ভক্তদের একটি দল ক্যান্সার সম্পর্কে সচেতনতা তৈরিতে আজ হেটে হেটে ঢাকার কার্জন হল এলাকা থেকে গাজীপুরের নুহাশ পল্লী যাচ্ছেন। কিছুক্ষণ আগে কথা হলো নজরুল ইসলাম নামে একজনের সাথে। তিনি বলছেন তারা ঢাকার বাড্ডা পর্যন্ত এসে পৌঁছেছেন। কার্জন হল থেকে রওনা হয়েছিলেন ১২ জন। বাড্ডা পর্যন্ত যাওয়ার পর ... ...

    বিস্তারিত দেখুন

  • ছড়া/কবিতা

    এই যে শহররওশন মতিনএ শহরটা কেমন শহর-স্বপ্ন মোড়া রঙিন চাদর,খাঁচার পোষা ময়না পাখি,বড্ড বাচাল কথার বহর,চাঁদের হাসি, তারার আদর,যায়না ছোঁয়া, কেবল ফাঁকি,সব হারিয়ে স্বপ্ন আঁকি!ব্যস্ত জীবন চরকি পাকে ঘুরছে যেন যন্ত্র,হন্যে হয়ে খুঁজি সবাই আলাউদ্দীনের যাদুই চেরাগ মন্ত্র,ময়লা-কাদার জটলা পাকে,ঝুলিয়ে রাখি কষ্টটাকে,শহরত নয় আজগুবি এক চিঠির ঝুলি,খাঁচায় পোষা ময়না পাখির মিষ্টি বুলি।পথ-কলিরা ... ...

    বিস্তারিত দেখুন

  • লালগ্রহ মঙ্গল জয়

    লালগ্রহ মঙ্গল জয়

    মাহমুদ শরীফ : দুই.৪৭ মিটার লম্বা আর সাড়ে ৭ মিটার চওড়া বিশাল দেহ নিয়ে সিংহাসনে খুশি মনে বসে আছেন আড়াই হাজার বছর ... ...

    বিস্তারিত দেখুন

  • অনন্য এক উদারতা

    ইকবাল কবীর মোহন : নাম আবদুল্লাহ বিন মুবারক (রহ)। ইরাকের এক মরু শহরে তিনি বাস করতেন। তাঁর ছিল বেশ ধন-সম্পদ। তবে তিনি ছিলেন বেশ উদার। আবদুল্লাহ বেশি বেশি হজ করতেন। তাই তাঁর আত্মীয়-স্বজন ও বন্ধু-বান্ধবরাও তাঁর সাথে হজে যেতে ইচ্ছাপোষণ করতো। এক বছর হজের সময় লোকেরা তাঁর কাছে এলো এবং আরজ করলো, ‘হযরত, আমরা আপনার সাথে হজে যেতে চাই।’তিনি বললেন, “ঠিক আছে, যেতে চাও যাবে। তোমরা তোমাদের ... ...

    বিস্তারিত দেখুন

  • ফাহিমের ভালো লাগা

    আখতার হামিদ খান : ছোট, খুব ছোট একটি ছেলে। বয়েস নয়-দশ। নাম তার ফাহিম। সে খুব ভাল ছেলে। স্কুলে সে ক্লাস ফাইভে পড়ে। তার ছোট মনটা ফুলের মত কোমল ও বিনয়ী। সে গরীব-দুঃখীদের দেখলে মনে কষ্ট পায়। বয়েস চার বছরের সময়ও কোন ভিক্ষুক বাসার গেটে এসে হাঁক দিলে সে তাড়াতাড়ি দৌড়ে ভিক্ষে দিত। কেউ তার আগে ভিক্ষে দিতে পারত না। সে বলতো আমিই দেবো। তার ছোট আপু রিপা যদি কোন দিন দিয়ে দিত, দেখা মাত্র সে অভিমানে ... ...

    বিস্তারিত দেখুন

  • দাঁড়ানোর শেষ উপকূল

    খুরশীদ আলম বাবুফররুখ আহমদ-এর ‘সাত সাগরের মাঝি’ পড়েএ এক অচেনা নদী। মৃতের  আত্মার মতন পল্কা হাওয়ায়ভাসতে ভাসতে আজ আমরা এখানেই এসেছি।এসেই দেখি নদীটাই সমুদ্র হয়ে গেছে।আমরা কেউ অবাক হলাম না।অথচ তাঁর সমুদ্র হওয়াটায় ছিলো যেন  বড় অন্যায়।নদীটা জানতো না এখানে কাঁটালতা পানি পেয়ে তরতর গতিতে বেড়ে যায়।অন্যায় আক্রোশে দীপ্র নব্য নদীটাকে অসংখ্য মৌমাছি মুহূর্তের মধ্যে বানিয়ে ফেলতে ... ...

    বিস্তারিত দেখুন

  • মেঘ তুমি এসে

    সাইফ আলিমেঘ তুমি এসে নেভাও এ দাবানলপুড়ে গেল সব মায়াবী পাখির ’বাসঅঝোর ধারায় নামাও শীতল জলআরেকটিবার নিতে চাই নিঃশ্বাস।এই নগরীতে আগুন লেগেছে খুবআগুন লেগেছে কোটি মানুষের মনে একসমুদ্র জল দাও দেবো ডুবতুমিই পারবে এ আমার বিশ্বাস।এখানে আজকে হৃদয়ের তল্লাটে ফাগুনের নামে আগুনের বসবাসসুখের জাহাজ ভিড়বে না এই ঘাটেপ্রতি মুহূর্তে উঠছে নাভিশ্বাস।মেঘ তুমি এসে নেভাও এ দাবানলএখন ভরসা ... ...

    বিস্তারিত দেখুন

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ