শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

নতুন রুশ পারমাণবিক বোমার বিস্ফোরণে ধ্বংস হবে পুরো নিউইয়র্ক

২৬ অক্টোবর, ইন্ডিপেন্ডেন্ট : রাশিয়া তাদের সবচে বড় এবং শক্তিশালী পারমাণবিক মিসাইলের ছবি প্রকাশ করেছে। ‘আরএস-২৮ সারমাত’ নামের রুশ এই যুদ্ধাস্ত্রের ব্যাপকতা এত বেশি যে, এর একটি বিস্ফোরিত হলে আমেরিকার নিউইয়র্কের সমান একটি এলাকা নিমেষেই ধ্বংস করে দিতে পারে।
রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন দেশটির অস্ত্রাগারে বুড়ো হয়ে যাওয়া এসএস-১৮ এর স্থলে এই অস্ত্রটিকে স্থাপন করতে চাইছেন। এসএস-১৮ ১৯৭৪ সাল থেকে রুশ যুদ্ধ বহরের সঙ্গে সংযুক্ত ছিলো।
‘ম্যাকাছেভ রকেট ডিজাইন ব্যুরো’র বরাত দিয়ে বুধবার ব্রিটিশ গণমাধ্যম ইনডিপেন্ডেন্ট জানায়, রাশিয়ান আরএস-২৮ মারণাস্ত্রটির কমপক্ষে ১৬টি পারমাণবিক মুখ রয়েছে। ২০১৮ সালে এটি যুদ্ধের জন্য পুরোদমে প্রস্তুত হবে। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের শেষ দিকে জাপানের হিরোশিমা এবং নাগাসাকিতে পারমাণবিক বিস্ফোরণে প্রায় ১ লাখ ২৯ হাজার মানুষ মরেছিলো। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, নতুন পারমাণবিক অস্ত্রটি সে তুলনায় কয়েকগুন বেশি শক্তিশালী।
পল ক্রেইগ রবার্টস একটি ব্লগ পোস্টে জানান, নতুন রুশ মিসাইলগুলোর যে কোন একটি পুরো নিউইয়র্ক রাজ্যটিকে ধূলিস্মাৎ করে দিতে পারে।
ম্যাকাছেভ রকেট ডিজাইন ব্যুরো রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত সংবাদ সংস্থা স্পুটনিক ইন্টারন্যাশনালে আরএস-২৮ সারমাতের ছবি প্রকাশ করে এক বিবৃতিতে বলে, ‘২০১০ সালে ব্যাপক বিধ্বংসী এই মারণাস্ত্র তৈরীর নির্দেশ দেওয়া হয়। ২০১২ থেকে ২০১৩ সালের মধ্যে এর পরিকল্পনা করা হয়।’ ম্যাকাছেভ রকেট ডিজাইন ব্যুরোর প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে সারমাত’র কাজ শুরু হয়। ২০১১ সালের জুন মাসে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এটি প্রস্তুতের অনুমোদন দেয়।
সাম্প্রতিক সময়গুলোতে সিরিয়া এবং ইউক্রেন ইস্যুতে পশ্চিমাদের সঙ্গে বিরোধের সূত্র ধরে রাশিয়া সারমাত তৈরীর সিদ্ধান্ত নেয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ