মঙ্গলবার ০৪ আগস্ট ২০২০
Online Edition

বর্ণবৈষম্য ও ঘৃণা ছড়ানোর অভিযোগে বিচার হচ্ছে ওয়াইল্ডার্সের

অনলাইন ডেস্ক: নেদারল্যান্ডসের রাজনীতিবিদ গ্রিট ওয়াইল্ডার্স বর্ণবাদী বৈষম্য ও ঘৃণা ছড়ানোর অভিযোগে বিচারের মুখোমুখি হচ্ছেন।

বিবিসি বলছে, ১৮ মাস আগে এক সমাবেশে দেশটিতে থাকা মরক্কোর অধিবাসীদের বিরুদ্ধে ঘৃণা ছড়ানোর অভিযোগে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়েছে।

নেদারল্যান্ডসের ফ্রিডম পার্টির (পিভিভি) নেতা ওয়াইল্ডার্স জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি এই মামলায় হাজিরা দেবেন না। একে ‘হাস্যকর’ বলে অভিহিত করেছেন তিনি। 

আনীত অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত হলে তাকে জরিমানাসহ একবছরের কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে।

ওয়াইল্ডার্স ধারাবাহিকভাবে ইসলাম ধর্মের সমালোচনা করে আসছেন। তিনি মুসলিমদের পবিত্র ধর্মগ্রন্থ কোরানকে নিষিদ্ধ করারও আহ্বান জানিয়েছিলেন। পাশাপাশি নেদারল্যান্ডসের সব মসজিদ বন্ধ করে দেওয়াও আহ্বান জানিয়েছিলেন।

২০১৪ সালে পিভিভি আয়োজিত এক সমাবেশে তিনি সমর্থকদের উদ্দেশে জিজ্ঞেস করেছিলেন, তারা নেদারল্যান্ডসে মরক্কোর ‘কম নাকি বেশি’ অধিবাসীকে দেখতে চান।

সমর্থকেরা তখন সমস্বরে চিৎকার করে বলেছিল, ‘কম’। তখন তিনি উত্তর দিয়েছিলেন, ‘আমরা সেটা বাস্তবায়ন করবো’।

বাক স্বাধীনতাকে রুদ্ধ করার প্রচেষ্টা এই বিচার- দাবি করে ওয়াইল্ডার্স আদালতে হাজির হতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন।

এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, “এটি একটি রাজনৈতিক পক্ষপাতদুষ্ট বিচার। যার কারণে আমি সহযোগিতা করতে অস্বীকৃতি জানাই।”

আগামী মার্চে দেশটিতে পার্লামেন্ট নির্বাচন হবে। ওয়াইল্ডার্সের নেতৃত্বাধীন পিভিভি বেশ ভালো অবস্থানে রয়েছে বলে সাম্প্রতিক জরিপে উঠে এসেছে। আর এরই মাঝে দলটির নেতার বিরুদ্ধে বিচার শুরু হল।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ