বুধবার ০৩ জুন ২০২০
Online Edition

কুড়িগ্রামের উলিপুরে দাহ্য পদার্থ প্রয়োগে উঠতি ধানের ব্যাপক ক্ষতি

মোস্তাফিজুর রহমান কুড়িগ্রাম থেকে : জেলার উলিপুর উপজেলার তনুরাম পান্ডুল এলাকায় চলতি আমন মওসুমের ইরি স্বর্ণাধান ক্ষেতে প্রতিপক্ষের দেয়া দাহ্ পদার্থে বিনষ্ট হয়েছে ১৯শতক তফসিলভুক্ত জমির ধানক্ষেত। থানায় অভিযোগ দায়ের। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন কৃষি বিভাগের কর্মকর্তা ও থানার পরিদর্শক। প্রতিপক্ষ দুর্দান্ত।
অভিযোগের প্রেক্ষিতে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, উলিপুর থানাধীন তনুরাম পান্ডুল এলাকার জয়নাল আবেদীন তার মেয়ে-জামাই’র জমিতে রোপণকৃত চলতি আমনের স্বর্ণাধান ক্ষেত নষ্ট হয়েছে। চাষাবাদকারী জয়নাল আবেদীন ও এলাকাবাসী জানায় প্রতিপক্ষের দেয়া বিষাক্ত দাহ্ পদার্থের বিষে সমস্ত ধানক্ষেত মরে শুকিয়ে গেছে। অভিযোগকারী ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে ২৬ অক্টোবর’র পর ৩০ অক্টোবর’র মধ্যে কোন একদিন উক্ত ফসলের জমিতে বিনষ্টকারী ঔষধ দিয়ে পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে। এতে তার ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে বলে জানা গেছে। বিবদমান প্রতিপক্ষ একই এলাকার সিদ্ধান্ত মালতীবাড়ী পান্ডল এলাকার মৃত অম্বিকা চরণ’র পুত্র গোকুল চন্দ্র (৫৫) এবং মোঃ হুরমত এর পুত্র আঃ সামাদ (৫৫)। প্রতিপক্ষরা ঐ এলাকার দুর্দান্তপ্রকৃতির বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিবদমান তফসিলভুক্ত জমির জেএল নং-৬৭ এর খতিয়ান-৫০ দাগ-৩৪ ডিপি খতিয়ান-১৫৫ জমি-১৯শতক মর্মে অভিযোগ পত্রে উল্লেখ করা হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত জয়নাল আবেদীন ঘটনার সুষ্ঠুবিচার দাবি করে থানায় অভিযোগ দিয়েছে। তারই প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার বিকেলে উলিপুর থানার এসআই জুলফিকার আলী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন বলে জানিয়েছেন জয়নাল আবেদীন। উলিপুর কৃষি বিভাগের অফিসার আইনুল হক উক্ত ফসলের জমি পরিদর্শন করে সেখান থেকে আলামত সংগ্রহ করে তা পরীক্ষা নিরীক্ষার জন্য অফিসে পাঠিয়েছেন বলেও জানা গেছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ