বৃহস্পতিবার ২৮ মে ২০২০
Online Edition

সিলেটে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রকে তুলে এনে টাকা ও মোবাইল ছিনিয়ে নিল ছাত্রলীগ কর্মীরা

সিলেট ব্যুরো: সিলেট মহানগরীর কাজল শাহস্থ এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ রোড থেকে বেসরকারি একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রকে তুলে এনে মারধর করার পর নগদ টাকা ও মোবাইল ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে। গত শনিবার জল্লারপাড়ের একটি ঘরে তিন ঘণ্টা আটক রেখে সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি এক ছাত্রকে মারধর করেছে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। এসময় তার মোবাইল ফোন, মানিব্যাগে থাকা ৮০০টাকা এবং বিকাশ থেকে আরো পনেরশত টাকা ছিনিয়ে নেয় তারা- এমন অভিযোগ করেছেন মারধরের শিকার সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির আইন অনুষদের ছাত্র আব্দুর রউফ ইয়াসিন।
গতকাল রোববার গণমাধ্যমে তিনি জানান, গত শনিবার ৩ টার দিকে সিলেট জেলা ছাত্রলীগের অর্থ সম্পাদক ফুজায়েল আহমদ বাপ্পির নেতৃত্বে শিমুল, বাপ্পি ইকবালসহ বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী তাকে মেডিকেল রোড থেকে জল্লারপাড়ে তুলে নিয়ে আসে। সেখানে তাদের নিয়ন্ত্রিত একটি ঘরে আটকে মুক্তিপণ হিসেবে বিশ হাজার টাকাও চায়। কিন্তু টাকা না দেয়ায় তারা তাকে মারধর করে মোবাইল ফোন এবং মানিব্যাগে থাকা ৮০০ টাকা ছিনিয়ে নেয়।
তাছাড়া তাকে দিয়ে বিকাশে আরও পনেরশত টাকা আনায়। পরে সন্ধ্যা সোয়া ৫টার দিকে সেখান থেকে তাকে অন্যত্র স্থানান্তর কালে তিনি সুযোগ বুঝে পালিয়ে যেতে সক্ষম হন।
ইয়াসিন বলেন, ‘তিনি দক্ষিণ সুরমার একটি মেসে থাকতেন। সেখানে বাপ্পিও থাকত। দুই মাস আগে সেই মেস থেকে বাপ্পির একটি মোবাইল ফোন চুরি হয়ে যায়। আজ সে মেডিকেল রোডে আমায় আটকে মোবাইল ফোন চুরি আমি করেছি উল্লেখ করে টাকা দাবি করে। পরে আমায় তারা উঠিয়ে নিয়ে যায়।’
এ ব্যাপারে অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতা ফুজায়েলের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তার কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি। মুঠোফোন থেকে বেশ কয়েকবার তার নাম্বারে কল করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ