মঙ্গলবার ০৭ জুলাই ২০২০
Online Edition

ভারতকে নিয়ে আমরা চিন্তিত নই -বিমান বাহিনীর প্রধান

২৪ নবেম্বর, ডন : পাকিস্তানের বিমান বাহিনীর প্রধান এয়ার মার্শাল সোহাইল আমান বলেছেন, তার দেশের সামরিক বাহিনী ভারতকে নিয়ে আদৌ চিন্তিত নয়। নবম আন্তর্জাতিক সামরিক প্রদর্শনী ও সেমিনারে বক্তৃতা দেয়ার সময়  গতকাল বৃহস্পতিবার তিনি এ কথা বলেছেন। সীমান্তের নিয়ন্ত্রণ রেখার কাছে ভারতীয় সেনাবাহিনীর গুলীতে পাকিস্তানের তিন সেনা নিহত হওয়ার একদিন পর মার্শাল সোহাইল এ মন্তব্য করলেন। তিনি বলেন, ভারত যদি গোলাগুলী থেকে বিরত থাকে তবে সেটিই ভালো। কাশ্মির সমস্যা সমাধানের আহ্বান জানিয়ে সোহাইল আমান বলেন, “নয়াদিল্লির উচিত নীতি-আদর্শের ওপর দাঁড়িয়ে কথা বলা; তাহলে আমাদের সম্পর্ক উন্নত হবে।”
ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে ব্যাপক গোলাগুলীর ঘটনায় সীমান্তে অন্তত ২০ জন নিহত হয়েছে। এর মধ্যে পাকিস্তানের তিন সেনা ও ১০ বেসামরিক নাগরিক রয়েছে। ভারতের পক্ষে সাত সেনার নিশ্চিত মৃত্যুর কথা বলেছে পাকিস্তানের আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর বা আইএসপিআর। এসব হত্যাকাণ্ডের পর পাকিস্তান ও ভারতের মধ্যে উত্তেজনা এবং বাগযুদ্ধ বেড়ে গেছে। ২০০৩ সালে যুদ্ধবিরতি চুক্তি সই হওয়ার পর সীমান্ত সংঘর্ষে একদিনে সবচেয়ে বেশি বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছে।
এদিকে কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণ রেখার কাছে ভারত-পাকিস্তান গোলাগুলীতে তিন পাকিস্তানি সেনা নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে দেশটির সেনাবাহিনী।
বুধবারের এ ঘটনায় নিহতদের মধ্যে সামরিক বাহিনীর এক কর্মকর্তা রয়েছেন বলে জানিয়েছে পাকিস্তান সামরিক বাহিনীর অন্তঃবাহিনী জনসংযোগ সম্পর্কিত (আইএসপিআর) বিভাগ, খবর ডন অনলাইনের।
“বিনা উস্কানিতে চালানো ভারতীয় গুলীবর্ষণের জবাব দেওয়ার সময় নিয়ন্ত্রণ রেখার কাছে তারা শাহাদাৎ বরণ করেন,” আইএসপিআরের বিবৃতিতে বলা হয়। নিহত সেনাদের একজন ক্যাপ্টেন তাইমুর আলি খান ও অপর দুজন হাবিলদার মুস্তাক হুসেইন এবং ল্যান্স নায়েক গুলাম হুসেইন বলে বিবৃতিতে জানানো হয়েছে। পাকিস্তানি সেনাদের পাল্টা গুলীতে ‘সাত ভারতীয় সেনা নিহত’ হয়েছেন বলে বিবৃতিটিতে দাবি করা হয়েছে। এতে পাকিস্তান সীমান্তে ভারত ও পাকিস্তানি সেনাদের মধ্যে গোলাগুলী অব্যাহত থাকার কথাও বলা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ