ঢাকা, শনিবার 4 July 2020, ২০ আষাঢ় ১৪২৭, ১২ জিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

ষষ্ঠবারের মত আইএএএফ বর্ষসেরা এ্যাথলেটের খেতাব জিতলেন বোল্ট

অনলাইন ডেস্ক: আন্তর্জাতিক এ্যাথলেটিক্স ফেডারেশন (আইএএএফ) এর বর্ষসেরা এ্যাথলেটের পুরস্কার আরেকবার জয় করেছেন অপ্রতিরোধ্য উসাইন বোল্ট। এই নিয়ে ষষ্ঠবারের মত এই পুরস্কার নিজের করে নিলেন জ্যামাইকান এই গতি তারকা। ডোপিং ও দূর্নীতি নিয়ে যেখানে বিশ্বব্যাপী এ্যাথলেটিক্স থেকে শুরু করে প্রায় সব ক্রীড়াই নিজেদের অবস্থান কিছুটা হলেও সংকীর্ণ করে ফেলেছে বিশ্ববাসীর সামনে, সেখানে বোল্ট এখনো ক্রীড়াঙ্গনের এক মূর্ত প্রতীক হয়ে নিজেকে প্রমান করে যাচ্ছেন। যার মধ্যে অন্ধকার জগতের কোন ছাপ তো নেইই বরং প্রতিদিনই নিজেকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাবার এক অদম্য সাহস ও ইচ্ছা রয়েছে। তরুণ প্রজন্মের কাছে সফল ও আধুনিক ক্রীড়াবিদের এক সুস্পষ্ট উদাহরণ হয়ে উঠতে পারেন বোল্ট। 

ট্র্যাক এন্ড ফিল্ড যেখানে তার হারানো ঐতিহ্য ফিরে পাবার লক্ষ্যে প্রতিনিয়ত বিশ্বের সামনে লড়াই করে চলেছে সেখানে বোল্ট যেন এসবের ধারে কাছেও নেই। রিও অলিম্পিকে ১০০ মিটারে টানা তৃতীয় স্বর্ণ পদক জয় করে হয়েছেন বিশ্বের দ্রুততম মানব। তবে এর মাধ্যমেই তিনি ক্যারিয়ারের শেষ অলিম্পিক আসরে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করে ফেলেছেন। এর অর্থ হচ্ছে টোকিওতে ২০২০ সালের অলিম্পিকে বিশ্বের অন্যতম সফল এই ক্রীড়াবিদের গতিময়তা দেখা থেকে বিশ্ববাসী বঞ্চিত হচ্ছে। তবে আগামী বছর লন্ডনে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশীপে অংশ নেবার ঘোষনা দিয়েছেন বোল্ট। 

রিওতে বোল্ট সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে আইএএএফ সভাপতি সেবাস্টিন কো বলেছিলেন, ‘এই মানুষটি অসাধারণ। মোহাম্মদ আলীর পরে জনগনের কাছাকাছি যাবার ক্ষেত্রে আর কেউই বোল্টের মত এত সফলতা পায়নি।’

বোল্ট জানিয়েছেন অলিম্পিকে ‘ট্রেবল-ট্রেবল’ জয়ের মাধ্যমেই তিনি মিশন পরিপূর্ণ করেছেন। একইসাথে ভবিষদ্ববাণীও করেছেন তার এই অর্জন কখনই ভাঙ্গার নয়। অদম্য মানসিকতা ও নিজের কাজের প্রতি একাগ্রতা থেকেই বোল্ট এমন মন্তব্য করেছেন, তার মত ক্রীড়াবিদের পক্ষেই কেবল এই ধরনের কথা মানায়। এটা শুধুমাত্র বোল্টা স্বয়ং নন সংশ্লিষ্ট সকলেরই মত। 

রিওতে ১০০ ও ২০০ মিটাওে স্বর্ণ জয়ের পরে ৪ গুনিতক ১০০ মিটার রিলেতে জ্যামাইকাকে টানা তৃতীয় অলিম্পিকে স্বর্ণ উপহার দেন বোল্ট। সেই অর্জনের পরপরই বোল্ট বলেছিলেন, ‘আশা করি যে উচ্চতা আমি স্পর্শ করেছি সেখানে আর কেউই কোনদিন পৌঁছাতে পারবে না। ট্র্যাক এন্ড ফিল্ডে যা করতে চেয়েছি সেটাই করেছি।’ 

বোল্টের ঝুলিতে এখন রয়েছে ২০টি অলিম্পিক ও বিশ্ব শিরোপা। এই অর্জণ একমাত্র রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক স্প্রিন্টার ও লং জাম্পার কার্ল লুইসের। বোল্ট ছাড়া অলিম্পিকে নয়টি স্বর্ণ প্রাপ্ত একমাত্র এ্যাথলেট হলেন দূর পাল্লার দৌড়বিদ পাভো নুরমির। ১৯৮৪ থেকে ১৯৯৬ সালের মধ্যে লুইস এই কৃতিত্ব অর্জন করেছিলেন। অন্যদিকে নুরমি ১৯২০’র দশকে এই কৃতিত্ব দেখিয়েছিলেন। 

আইএএএফ বর্ষসেরা এ্যাথলেট বিজয়ীদেও তালিকা : 

সাল পুরুষ এ্যাথলেট নারী এ্যাথলেট

২০১৬ উসাইন বোল্ট (জ্যামাইকা) আলমাজ আয়ানা (ইথিওপিয়া)

২০১৫ এ্যাস্টন ইটন (যুক্তরাষ্ট্র) গেনজেবে ডিবাবা (ইথিওপিয়া)

২০১৪ রেনড লাভিলেনি (ফ্রান্স) ভালেরি এ্যাডামস (নিউজিল্যান্ড)

২০১৩ উসাইন বোল্ট (জ্যামাইকা) শেলি-এ্যান ফ্রেসার-প্রাইস (জ্যামাইকা)

২০১২ উসাইন বোল্ট (জ্যামাইকা) এ্যালিসন ফেলিক্স (যুক্তরাষ্ট্র)

২০১১ উসাইন বোল্ট (জ্যামাইকা) স্যালি পিয়ারসন (অস্ট্রেলিয়া)

২০১০ ডেভিড রুডিশা (কেনিয়া) ব্ল্যাঙ্কা ভøাসিস (ক্রোয়েশিয়া)

২০০৯ উসাইন বোল্ট (জ্যামাইকা) সানিয়া রিচার্ডস (যুক্তরাষ্ট্র)

২০০৮ উসাইন বোল্ট (জ্যামাইকা) ইয়েলিনা ইসিনবায়েভা (রাশিয়া)

২০০৭ টাইসন গে (যুক্তরাষ্ট্র) মেসেরেট ডিফার (ইথিওপিয়া)

২০০৬ আসাফা পাওয়েল (যুক্তরাস্ট্র) সানিয়া রিচার্ডস (যুক্তরাষ্ট্র)

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ