সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

টুইট বার্তায় মিডিয়া ব্যবসার খবর নাকচ দায়িত্ব ছেড়ে ঘুমাতে চান ওবামা

৩ ডিসেম্বর, এএফসি : মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ২০ জানুয়ারি ক্ষমতা হস্তান্তর করছেনএটা পুরোনো খবর। সাবেক হয়ে তিনি কী করবেনএখন সেটা নিয়ে চলছে নানা জল্পনা-কল্পনা। সর্বশেষ শোনা গিয়েছিল, তিনি মিডিয়া ব্যবসা করবেন। তবে এক টুইট বার্তায় সে খবর নাকচ করে দিয়েছেন হোয়াইট হাউসের যোগাযোগবিষয়ক পরিচালক। যাকে নিয়ে এত জল্পনা-কল্পনা সেই ওবামা জানিয়েছেন, দায়িত্ব ছাড়ার পর তিনি কয়েক সপ্তাহ ঘুমাতে চান।
গত শুক্রবার মিক নিউজ সাইটের এক খবরে বলা হয়, সাবেক হওয়ার পর বারাক ওবামা ডিজিটাল মিডিয়া নিয়ে কাজ করা ও নিজস্ব মিডিয়া প্রতিষ্ঠান খোলার চিন্তা করছেন। ওবামার এমন ভাবনার কারণ হিসেবে তথ্য বিষয়ে তাঁর সাম্প্রতিক নানা কথাবার্তার বিষয় উল্লেখ করা হয়।
এবারের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তথ্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে বলে বিভিন্ন সময়ে উল্লেখ করেছেন বারাক ওবামা। ভুল তথ্য, বিকৃত তথ্য এবারের নির্বাচনকে প্রভাবিত করেছে সময় পেলেই ওবামা এমন অভিযোগ করেছেন। তিনি বলেছেন, বর্তমান মিডিয়া ব্যবস্থাটি এমন যে মনে হয় ‘সবই সত্য, আবার কিছুই সত্য না’। এসব বিষয়ের পরিপ্রেক্ষিতে মিক নিউজ সাইটের খবরে বলা হয়েছিল, হোয়াইট হাউস ছাড়ার পর মিডিয়া ব্যবসায়ী হিসেবে আত্মপ্রকাশ করতে যাচ্ছেন তিনি।
এ খবর হোয়াইট হাউসের নজরে আসে। হোয়াইট হাউসের যোগাযোগ বিষয়ক পরিচালক জেন সাকি টুইট বার্তায় বলেন, যে উপায়ে জনগণ তথ্য পায়, প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা সে উপায়গুলোতে পরিবর্তনের পক্ষে। তবে দায়িত্ব ছাড়ার পর মিডিয়া ব্যবসা শুরু করার কোনো পরিকল্পনা তাঁর নেই।
মার্কিন পাক্ষিক পত্রিকা রোলিং স্টোন-এর সঙ্গে আলাপকালে বারাক ওবামা তাঁর ভবিষ্যৎ জীবনের কর্মকা- সম্পর্কে একটা ধারণা দিয়েছেন। তিনি জলবায়ুর পরিবর্তন নিয়ে কাজ করতে চান। তিনি মনে করেন, জলবায়ু পরিবর্তনের বিষয়টি সম্পর্কে পৃথিবীর সব প্রান্তের মানুষকে জানাতে হবে। এটা কেন ভবিষ্যৎ জীবনের জন্য গুরুত্বপূর্ণ, সেটা সবারই জানা উচিত। এ ছাড়া ভবিষ্যতের নেতাদের জন্য প্রশিক্ষণ ও ক্ষমতায়নে সহায়ক কিছু একটা করতে চান তিনি।
আর অবশ্যই অবশ্যই যেটা করতে চান, সেটা হলো ক্ষমতা ছাড়ার পর ওবামা কয়েক সপ্তাহ ঘুমাতে চান। স্ত্রী মিশেল ওবামাকে নিয়ে চমৎকার একটা অবসর কাটাতে চান। আগামী এক বছরের মধ্যে একটা বই লেখার পরিকল্পনা পাকা করেছেন বলেও জানান তিনি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ