বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪
Online Edition

সন্ত্রাস মোকাবিলায় নতুন পদক্ষেপ

রিয়াদ থেকে আরব নিউজ : সৌদি আরব সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলা করার জন্য নতুন পদ্ধতি প্রণয়ন ও প্রবর্তন করেছে। ‘‘বিআইপি’’- বুরো অব ইনভেস্টিগেশন এন্ড প্রসিকিউশনের শীর্ষ সৌদি কর্মকর্তারা রোববার রিয়াদে এই তথ্য দেন। বিআইপি'র এক পরামর্শক আব্দুল মোহ্সেন আল মুনিফ বলেন, দেশজুড়ে প্রায় সমস্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে সন্ত্রাসবাদ সম্বন্ধে বিজ্ঞানসম্মত গবেষণা বিভাগ খোলার কাজ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। আল মুনিফ জানান, সৌদি আরব কিছুসংখ্যক পদ্ধতি প্রবর্তনের মাধ্যমে সন্ত্রাস প্রতিরোধ প্রচেষ্টা জোরদার করে তুলেছে। মসজিদসহ টেলিভিশন, সংবাদপত্র ও অন্যান্য সংবাদ মাধ্যম মারফত সন্ত্রাসবাদ প্রশ্নে ধর্মীয় বিধিনির্দেশ প্রচার ঐ প্রচেষ্টায় শামিল রয়েছে। ইসলামে কঠোরভাবে নিষিদ্ধ উদভ্রান্ত সহিংসতা, সন্ত্রাসী কর্মকান্ড, সংঘবদ্ধ অপরাধ ও সন্ত্রাসী তৎপরতায় অর্থ সরবরাহসহ অপতৎপরতা নিবৃত্ত থাকার জন্য ফতোয়ায় জনগণকে আহবান জানানো হয়ে থাকে বলে আল-মুনিফ বলেন। ‘‘ওয়ার্কশপ অন ইন্টারন্যাশনাল লিগ্যাল ফ্রেমওয়ার্ক ফর কাউন্টার টেরোরিজম এন্ড ইট্স ফিনান্সিং’’য়ের প্রথম অধিবেশন অনুষ্ঠিত হওয়ার পর আল মুনিফ এই কথাগুলো বলেন। মাদক ও অপরাধ বিষয়ক জাতিসংঘ দফতর (ইউ এন অফিস অন ড্রাগ্স্ এন্ড ক্রাইম)য়ের সহযোগিতায় বিআইপি ওয়ার্কশপটি আয়োজিত করে। অধিবেশনে যোগ দেন ‘বিআইপি'র প্রশাসনিক পরিকল্পনা পরিচালক খোমায়েস সা'দ আল্ আলি এবং ওয়ার্কশপ কমিটির সদস্য ডক্টর মাজিদ অল্ হার্বি। বিচারক, আইনজীবী ও আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কর্মকর্তাসহ সন্ত্রাস বিষয়ক জাতীয়, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞরা তিনদিনের ওয়ার্কশপে অংশ নিচ্ছেন। ভিয়েলভিত্তিক জাতিসংঘ মাদক ও অপরাধ দফতর ও ক্রিমিনাল জাস্টিশ শাখার আইনী কর্মকর্তা কনডাইস ওয়েল্শ্ বলেন, মাদক উৎপাদন ও চোরাচালান, অস্ত্রপাচার, নথিপত্রের জালিয়াতি, অভিবাসী চালান, বিপদের হুমকি দিয়ে অর্থ আদায় এবং অর্থ পাচারের মতো অপকর্মে সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলো জড়িত রয়েছে। ওয়েলশ বলেন, শুধুমাত্র আফগানিস্তানে আলকায়েদা ও তালিবান আফিম উৎপাদন ও চালানের মাধ্যমে মুনাফা অর্জন করে চলেছে। মুনাফার অর্থের ২০০৩-২০০৮ সালে পরিমাণ ছিল ১৮ বিলিয়ন ডলার) বলেন ওয়েলশ। সৌদি আরবে সন্ত্রাসের অভিশাপ মোকাবিলায় গৃহীত ও চলমান পদক্ষেপগুলোর কথা উল্লেখ করে আল-হার্বি বলেন, প্রিন্স মুহাম্মদ বিন নায়েক সেন্টার ফর কেয়ার এন্ড কাউন্সেলিংয়ের স্থাপনা সন্ত্রাস ত্যাগে আগ্রহী ব্যক্তিদের পুনর্বাসনে পর্যাপ্ত সহায়তা দেবে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সন্ত্রাস প্রতিরোধ রণকৌশল পরিবর্তিত করার মাধ্যমে ধারাবাহিক অভ্যন্তরীণ সন্ত্রাস মোকাবিলায় অবতীর্ণ হলে ২০০৪ সালে সৌদি আরবে ডি র্যা ডিক্যালাইজেশন কার্যক্রম শুরু করা হয়। নতুন উদ্যোগের একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হচ্ছে কারাগারে ধর্ম বিষয়ে পুনরায় শিক্ষাদান ও মনে সিফ সান্ত্বনা দানের মাধ্যমে উগ্রপন্থীদের পুনর্বাসন। আল আলি বলেন, এছাড়া সন্ত্রাসসংশ্লিষ্ট অপরাধ মোকাবিলায় বিআইপির অধীনে একটি পৃথক শাখাও সৌদি আরবে স্থাপিত হয়েছে। সন্ত্রাস সম্বন্ধে জাগরুকতা সৃষ্টির লক্ষ্যে মসজিদ ও স্কুলগুলোয় প্রবর্তিত কনট্যাক্ট প্রোগ্রামের মাধ্যমে সাধারণ মানুষ এ সময় কার্যক্রম বিষয়ে অবহিত হতে পারবেন। মার্কিন বিচার বিভাগের মাইকেল টেক্সেই মার্কিন প্রেক্ষাপটে সন্ত্রাস মোকাবিলায় গৃহীত পদক্ষেপের উল্লেখসহ হামাস ও হিযবুল্লাহসহ প্রায় ৪৫টি বিদেশী সন্ত্রাসী সংস্থার নামোল্লেখ করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ