সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

তুলা আমদানিতে ভারতের বিকল্প খুঁজছেন ব্যবসায়ীরা

বাংলাদেশ কটন এসোসিয়েশন ও বাংলাদেশ টেক্সটাইল মিলস এসোসিয়েশন কর্তৃক যৌথ আয়োজিত গ্লোবাল কটন সামিট-২০১৭ উপলক্ষে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিং-এ বক্তব্য রাখেন মো. আলী খোকন, ভাইস প্রেসিডেন্ট বিটিএমএ -সংগ্রাম

স্টাফ রিপোর্টার : তুলা আমদানিতে ভারতের বিকল্প খুঁজতে চান ব্যবসায়ীরা। এই লক্ষ্য নিয়ে আগামীকাল শুক্রবার থেকে ঢাকায় শুরু হচেছ  টেক্সটাইল ও তুলা খাতের সর্ববৃহৎ গ্লোবাল কটন সামিট ২০১৭। সামিটের আয়োজন করছে বাংলাদেশ টেক্সটাইল মিলস অ্যাসোসিয়েশন (বিটিএমএ) ও বাংলাদেশ কটন অ্যাসোসিয়েশন (বিসিএ)।
গতকাল বুধবার  রাজধানীর কারওয়ান বাজারে বিটিএমএ’র কনফারেন্স রুমে ‘গ্লোবাল কটন সামিট বাংলাদেশ ২০১৭’ শীর্ষক সাংবাদিক সম্মেলনে এ তথ্য জাননো হয়। বিটিএমএ’র ভাইস প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ আলী খোকন বলেন, তুলা আমদানিতে কোনো একটি দেশের ওপর নির্ভরশীল না থেকে বিভিন্ন দেশের সঙ্গে যোগাযোগ তৈরির লক্ষ্যে এ সামিট শুরু হচ্ছে। অর্গানিক কটন আমদানিতে আমরা ভারতের ওপর শতভাগ নির্ভরশীল। অন্যান্য দেশে সোর্স তৈরি করা এবারের সামিটের অন্যতম লক্ষ্য।
তিনি আরও বলেন, ২০২১ সালে বাংলাদেশ টেক্সটাইল ও পোশাক রপ্তানি থেকে ৫০ বিলিয়ন ডলার রপ্তানির স্বপ্ন দেখছে, তা বাস্তবায়ন করতে হলে ইয়ার্ন ও ফে্িরব্রকর নিরবচ্ছিন্ন সরাবরাহ নিশ্চিত করতে হবে।  সুতা তৈরির প্রয়োজনীয় কাঁচা তুলার সোর্স এবং সাপ্লাই অক্ষুন্ন রাখতে হবে। এ সামিট সেক্ষেত্রে ভূমিকা রাখবে। দুই দিনব্যাপী এ সামিটে বাংলাদেশ, ভারত, সুদান, যুক্তরাজ্য, সিঙ্গাপুর, সুইজারল্যান্ড, মালি, বুরকানাফাসো, চাদ, তুরস্ক, ইরান যুক্তরাজ্যসহ কয়েকটি দেশ অংশ নেবে। আগামীকাল  সকাল ১০ টায় র‌্যাডিসন ওয়াটার গার্ডেন হোটেলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী উদ্বাধন করবেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ