শুক্রবার ২৯ মে ২০২০
Online Edition

শ্যামনগরে বোরো চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ

শ্যামনগর (সাতক্ষীরা) সংবাদদাতা: সাতক্ষীরা জেলার শ্যামনগর উপজেলার কৃষকরা বর্তমানে ইরি-বোরো ধান চাষে ব্যস্ত সময় পার করছেন। ইতিমধ্যে ইরি ধান রোপণের কাজ অনেকাংশে শেষ হয়েছে। চলছে পুরাদমে রোপণের কাজ। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এবার ইরি ধানের লক্ষ্যমাত্রা দ্বিগুণ উৎপাদন হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন এলাকার কৃষকরা।
শ্যামনগর উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, চলতি বছর ১২ টি ইউনিয়নের ১ হাজার ৬শ’ হেক্টর জমিতে ইরি বোরো চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারিত হয়েছে। উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ৮ হাজার ৮ শ’ মেট্রিকটন। চাউল উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ৫ হাজার ৮ শ’ মেট্রিক টন। গত বছরের তুলনায় এবার ৫০ হেক্টর জমিতে বেশি বোরো হচ্ছে। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আবুল হোসেন জানান, এ অঞ্চলে লবণাক্ততার প্রভাব বেশি থাকায় চাষীদের লবণ সহিষ্ণু বিনা- ১০ ও ৮ বোরো ধান চাষের পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। তা ছাড়া এ ধান চাষে পানি কম লাগে। উৎসাহ বাড়াতে ৬০ জন কৃষককে মাথাপিছু ১ হাজার ৩ শত টাকার সার ও ১০ কেজি করে ধানের বীজ দেয়া হয়েছে।
রামজীবনপুর গ্রামের বোরোধান চাষী আকবর হোসেন ও আব্দুর রউফসহ অনেকেই জানান, ধানের দাম গত বারের চেয়ে এবার একটু বেশী।
এ জন্য এলাকার কৃষকেরা বোরো ধান চাষে আগ্রহ বেড়েছে। তাছাড়া বর্ষা মৌসুমে কাক্সিক্ষত বৃষ্টির কারণে পর্যাপ্ত পরিমাণ মিষ্টি পানি মজুত থাকায় চাষীরা বোরো চাষে ঝুকে পড়েছেন। শেষ পর্যন্ত পরিবেশ অনুকূলে থাকলে কৃষকেরা আমনের মতো বোরো ফসলে বাম্পার ফলন আশা করছেন এলাকার কৃষকেরা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ