শুক্রবার ২৯ মে ২০২০
Online Edition

স্ত্রী দাবিদার তরুণীর মামলায় ক্রিকেটার সানিকে রিমান্ডে পায়নি পুলিশ

স্টাফ রিপোর্টার : নির্যাতনের অভিযোগে স্ত্রী দাবিদার এক তরুণীর করা মামলায় ক্রিকেটার আরাফাত সানিকে পুলিশ হেফাজতে জিজ্ঞাসাবাদের আবেদন নাকচ করে তাকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। গতকাল রোববার সানিকে আদালতে হাজির করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে সাত দিনের রিমান্ড চান মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদপুর থানার এসআই মাকসুদুর রহমান।
আবেদনের শুনানি করে বিচারক ঢাকার মহানগর হাকিম শরাফত আনসারী তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন বলে আসামির আইনজীবী এম জুয়েল আহমেদ জানিয়েছেন। পাশাপাশি সানির পক্ষে এই মামলায় জামিন চাওয়া হলে শুনানির জন্য যোগ্য আদালত অর্থাৎ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে যেতে বলেন বিচারক। জাতীয় দলের এই খেলোয়াড় একই তরুণীর করা আরেকটি মামলায় আগে থেকেই কারাগারে ছিলেন।
১ ফেব্রুয়ারি ক্রিকেটার সানির বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলার আবেদন করেন তার স্ত্রী হিসেবে পরিচয় দেয়া ওই তরুণী। ওই দিন ঢাকার ৪ নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আবেদনটি আমলে নিয়ে মোহাম্মদপুর থানা পুলিশকে তদন্তের নির্দেশ দেন। ওই আবেদনে আরাফাত সানিকে ১ নম্বর এবং তার মা নার্গিস আক্তারকে ২ নম্বর আসামি করা হয়েছে।
গত ২২ জানুয়ারি ঢাকার আমিনবাজারের বাসা থেকে গ্রেফতার ক্রিকেটার সানির বিরুদ্ধে তথ্যপ্রযুক্তি আইন এবং যৌতুক আইনে দুটি মামলা চলছে। তথ্যপ্রযুক্তি আইনের মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে একদিন হেফাজতেও পায় পুলিশ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ