বুধবার ০৫ আগস্ট ২০২০
Online Edition

গাজার তিনটি সীমান্ত ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর হামাসের

১ নভেম্বর, আলজাজিরা : ইসরায়েলের সঙ্গে গাজার এরেজ ও কেরেম শালোম সীমান্ত ও মিসরের সঙ্গে রাফাত সীমান্তের প্রশাসনিক ক্ষমতা ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের হাতে তুলে দিলো দেশটির মুক্তিকামী আন্দোলনের সশস্ত্র সংগঠন হামাস। গতকাল বুধবার কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যমের এক প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা যায়। প্রতিবেদনে বলা হয়, বিগত দশবছরে এমন ঘটনা এটাই প্রথম। ১২ অক্টোবর মিসরে ফাতাহ ও হামাসের সংলাপে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিলো। ফাতাহ’র মুখপাত্র ওসামা কায়েসমেহ বলেন, এই ক্ষমতা হস্তান্তরের ক্ষেত্রে দুই পক্ষের মধ্যে কোনও শর্ত বেঁধে দেওয়া হয়নি। তিনি বলেন, এটা আসলে ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের ক্ষমতা ফিরিয়ে নওয়া প্রক্রিয়া। ২০০৭ সালের আগে এমনটাই ছিলো বিষয়।’ যুক্তরাষ্ট্র সমর্থিত ফাতাহ নেতা মোহাম্মদ দাহলানের সামরিক অভ্যুত্থানের চেষ্টার কথাও টেনে আনেন তিনি। মঙ্গলবার দেওয়া এক বিবৃতিতে ফিলিস্তিনি বেসামরিক খাত বিষয়ক মন্ত্রী হুসেইন জানান, ২০০৫ এগ্রিমেন্ট অন মুভমেন্ট এন্ড একসেস আইন অনুযায়ী মিসরীয় সরকারের সঙ্গে নিবিড়ভাবে কাজ করতে প্রস্তুত ফিলিস্তিনের জাতীয় ঐক্যের সরকার। গাহার উপত্যকার কাছাকাছি মূল সীমান্তপথই হচ্ছে রাফায়। হামাস দখল করার পর থেকে গাজায় প্রায় ২০ লাখ মানুষের বসবাস। এরেজ সীমান্তটি উত্তরদিকে এবং এটি ইসরায়েল নিয়ন্ত্রণ করে। এছাড়া কার্নি, কেরেম শালোম ও সুফার তিনি কার্গো সীমান্তও এখন ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের নিয়ন্ত্রণে থাকবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ