শুক্রবার ০৫ জুন ২০২০
Online Edition

চিনি শিল্প রক্ষায় সরকার বহুমুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে

জয়পুরহাট সংবাদদাতা: চিনি শিল্প রক্ষায় এবং লাভজনক করতে সরকার বহুমুখী কর্মসূচী গ্রহণ করেছে। কৃষি ভিত্তিক শিল্প হিসেবে এ শিল্প রক্ষায় বেশি বেশি আখ রোপনের বিকল্প নেই। এ চিনি শিল্প রক্ষায় আখচাষিসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে এগিয়ে আসতে হবে। 

গতকাল শুক্রবার জয়পুরহাট সুগার মিলস্ লিঃ এর আয়োজনে সদর এ-সাবজন খন্জনপুরে নামলা ও পদ্ধতিগত মুড়ি আখচাষ বিষয়ক আখচাষি মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএসএফআইসি পরিচালক (উৎপাদন ও প্রকৌশল) এবিএম আরশাদ হোসেন উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। 

জয়পুরহাট সুগার মিলস্ লিঃ এর মহাব্যবস্থাপক (কৃষি) মজিবুর রহমান এর সভাপতিত্বে আলোচন সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জয়পুরহাট সুগার মিলস্ লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোস্তফা কামাল, আখচাষি কল্যান সমিতির আহ্বায়ক কেএম লায়েক আলী। উপ-মহাব্যবস্থাপক (সিপি) আব্দুল সালাম ফকিরের পরিচালনায় আরো বক্তব্য রাখেন জয়পুরহাট চিনি কল এর উপ-মহাব্যবস্থাপক (সম্প্র) আব্দুল বারী, জয়পুরহাট চিনি কল শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবীব (রুমেল), মোহাম্মাদাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান ও আখচাষী আতাউর রহমান, প্রভাস চন্দ্র মহন্ত, নাজিম উদ্দিন, গোলাম মাহমুদ মাষ্টার প্রমুখ। 

প্রধান অতিথি আরো বলেন চলতি ক্রয় মৌসুমের আখের মূল্য দ্রুত পরিশোধ করা হবে। জয়পুরহাটের মাটি আখচাষের উপযোগী তাই আখের সাথে সাথী ফসল করতে হবে এবং যথাযথভাবে আখের পরিচর্যা করে ফলন বৃদ্ধির ব্যাপারে সকলকে এগিয়ে আসার জন্য তিনি আহ্বান জানান। 

এছাড়াও বিকেলে সুগার মিলস্ ট্রেনিং কমপ্লেক্সে মিলের কর্মকর্তাদের নিয়ে এক মতবিনিময় সভায় তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন। 

মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বলেন আখচাষীদের দাবী অনুযায়ী কাক্সিক্ষত আখের মূল্য বৃদ্ধি না হলেও ২০১৮-১৯ মৌসুম হতে প্রতি কুইন্টাল সাড়ে ৩৭ টাকা বৃদ্ধি করেছে এবং অচিরেই আখের কাক্সিক্ষত মূল্য হয়ে যাবে। 

তাই তিনি চাষিদের নামলা ও পদ্ধিতিগত মুড়ি আখচাষসহ বেশি করে আখ চাষে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ