বুধবার ০৫ আগস্ট ২০২০
Online Edition

তিনজনের কারাদণ্ড, ৩ হাজার ফুট লাইন উচ্ছেদ

ফেনী সংবাদদাতা: ফেনী পৌরসভার ১৪নং ওয়ার্ড পশ্চিম রামপুরে সোমবার ১ কিলোমিটার অবৈধ গ্যাস লাইন উচ্ছেদ করেছে জেলা প্রশাসন। স্থানীয় লোকজন উচ্ছেদে বাধা দেয়ার চেষ্টা করলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ব্যাটালিয়ন আনসার ৪ রাউন্ড গুলি ছোঁড়ে। এ সময় তিনজনকে কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, রামপুর-মধুপুর এলাকায় অবৈধ গ্যাস লাইন উচ্ছেদে জেলা প্রশাসন অভিযানে নামে। অভিযানকালে দেখা যায়, পশ্চিম রামপুরে প্রায় ৭ কি.মি. লাইনে ১শ ৪৩টি রাইজারের মাধ্যমে অবৈধ সংযোগ প্রদান করেছে স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর মনির আহম্মেদ। প্রতিটি সংযোগ দিতে নেওয়া হয়েছে ৩০ থেকে ৪০ হাজার টাকা। কারো থেকে লাখ টাকাও নেয়া হয়েছে। অভিযানকালে কাউন্সিলর মনির আহম্মেদের নেতৃত্বে স্থানীয় একদল দুর্বৃত্ত অভিযানকে বাধা দেয়। র‌্যাবের সহায়তায় লোকজনকে রাস্তা থেকে সরিয়ে দেয়া হয়। এসময় গ্যাস অফিসের গাড়ীর চালকের উপর হামলা চালিয়ে সড়কে অবস্থান নেয়ার চেষ্টা করে কয়েকটি গাড়ী ভাংচুর করে।
পরিস্থিতি শান্ত করতে জেলা প্রশাসনের সহকারি কমিশনার ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক সোহেল রানা ব্যাটালিয়ান আনসারকে গুলির নির্দেশ দিলে ৪ রাউন্ড ফাকা গুলি করা হয়। এসময় ঘটনাস্থল থেকে তিনজনকে আটক করা হয়। সরকারী কাজে বাধা দেওয়ায় আটককৃত ৩ জনকে তাৎক্ষণিক ৩ মাস করে কারাদন্ড প্রদান করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। ঘটনাস্থল থেকে ৩ হাজার ২শ ফুট অবৈধ গ্যাস লাইন উচ্ছেদ করা হয়। উচ্ছেদ অভিযানে বাখরাবাদ গ্যাস সিস্টেমস লিমিটেডের ফেনী শাখা ব্যবস্থাপক আবু সাঈদ সরকার সহ কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। এ ঘটনায় বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি ফেনী শাখার ব্যবস্থাপকের মাধ্যমে কাউন্সিলর মনিরের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।
প্রসঙ্গত; ২০১৫ সালে জেলার বিভিন্ন স্থানে হাজার হাজার ফিট অবৈধ সংযোগ দিয়ে এক শ্রেণির অসাধু চক্র হাতিয়ে নিয়েছেন কোটি কোটি টাকা।
পরবর্তীতে বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে গ্যাস লাইন উচ্ছেদ করা হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ