রবিবার ৩১ মে ২০২০
Online Edition

তুরস্কের ওপর 'একতরফা মার্কিন নিষেধাজ্ঞা'র বিরোধিতা পাকিস্তানের

১৪ আগস্ট, মিডল ইস্ট মনিটর, রয়টার্স : তুরস্কের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞাকে একতরফা উল্লেখ করে বিরোধিতা করেছে পাকিস্তান। মার্কিন ধর্মযাজককে সন্ত্রাসবাদের অভিযোগে তুরস্কে আটকের ঘটনায় এই নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

 সোমবার পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, পাকিস্তান নীতিগতভাবে যে কোনও দেশের ওপর একতরফা নিষেধাজ্ঞা আরোপের বিরোধিতা করে। যে কোনও এবং সব ধরনের সমস্যার সমাধান হওয়া উচিত সংলাপ, দ্বিপক্ষীয় বোঝাপড়া ও কল্যাণের মাধ্যমে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, এর বিপরীতে যে কোনও উদ্যোগ ও পদক্ষেপ শান্তি ও স্থিতিশীলতাকে ক্ষতিগ্রস্ত করে। যা সমস্যার সমাধানকে আরও জটিল ও মোকাবিলা কঠিন করে তোলে।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক শান্তি ও স্থিতিশীলতার পক্ষে তুরস্কের অবদানের উচ্চকিত প্রশংসা করা হয়েছে। 

যুদ্ধবিমান বিক্রি স্থগিত করেছে যুক্তরাষ্ট্র

তুরস্কের কাছে সামরিক বিমান বিক্রি সাময়িকভাবে বন্ধ করে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এক মার্কিন ধর্মযাজককে গ্রেফতার করা নিয়ে দেশ দুটির মধ্যে চলমান উত্তেজনার মধ্যেই সোমবার এই ঘোষণা দেয় দেশটি। ওই দিন যুক্তরাষ্ট্রের বার্ষিক সামরিক বাজেটে স্বাক্ষর করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বাজেট ঘোষণায় তুরস্কের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্কের বিষয়ে প্রতিরক্ষা বিভাগকে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়। এর আগে তুরস্কের কাছে কমপক্ষে ৯০ দিনের জন্য বড় ধরনের সামরিক সরঞ্জাম বিক্রি বন্ধ করতে নির্দেশ দেওয়া হয়।

গত সোমবার স্বাক্ষরিত যুক্তরাষ্ট্রের বার্ষিক প্রতিরক্ষা বাজেটে বলা হয়েছে কমপক্ষে ৯০ দিনের জন্য তুরস্কের কাছে এফ-থার্টিফাইভ যুদ্ধবিমান বিক্রি বন্ধ রাখবে যুক্তরাষ্ট্র। একই সময়ে তুরস্কের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্কের বর্তমান অবস্থান সম্পর্কে কংগ্রেসের কাছে প্রতিবেদন দিতে প্রতিরক্ষা বিভাগকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রতিবেদন জমা না হওয়া পর্যন্ত তুরস্কের কাছে বড় ধরনের প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম বিক্রি করা যাবে না।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ