মঙ্গলবার ০২ জুন ২০২০
Online Edition

রাখাইনে বৌদ্ধধর্মাবলম্বী আরাকান আর্মির হামলায় ৭ পুলিশ নিহত

সংগ্রাম ডেস্ক : মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে পুলিশের চারটি চেক পোস্টে হামলা চালিয়ে সাত পুলিশ সদস্যকে হত্যা করেছে বৌদ্ধধর্মাবলম্বী আরাকান আর্মি।

গতকাল শুক্রবার মিয়ানমারের স্বাধীনতা দিবসে এ হামলা হয় বলে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী এবং ওই সশস্ত্র বাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। খবর রয়টার্স।

সেখানে সংখ্যালঘু বৌদ্ধ রাখাইনদের আরও অধিকারের দাবিতে লড়াইরত আরাকান আর্মির সঙ্গে মিয়ানমারের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তুমুল সংঘর্ষ হয় ডিসেম্বরের প্রথম দিকেও। শীর্ষকাগজ।

জাতিসংঘের তথ্য অনুযায়ী, আরাকান আর্মির সঙ্গে মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীর সাম্প্রতিক লড়াইয়ে গেল বছর শেষ নাগাদ আড়াই হাজার বেসামরিক নাগরিক বাস্তুচ্যুত হয়েছে।

আরাকান আর্মির মুখপাত্র খাইন থু খা রয়টার্সকে বলেছেন, তাদের সদস্যরা চারটি পুলিশ পোস্টে আক্রমণ করেছে এবং পরে সাত ‘শত্রুর’ মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

মিয়ানমার নিরাপত্তা বাহিনীর ১২ জন সদস্যকে আটক করা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, আমরা তাদের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেব। আমরা তাদের ক্ষতি করব না।

আরাকান আর্মির মুখপাত্র বলেন, সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে তাদের সদস্যদের ওপর মিয়ানমার সেনাবাহিনীর আগ্রাসনের জবাবে এই হামলা চালানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চলীয় রাখাইন প্রদেশে দেশটির সেনাবাহিনীর ‘ক্লিয়ারেন্স অপারেশন’-এ প্রায় ৯০ শতাংশ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালাতে বাধ্য হয়েছেন। গত আগস্টে রাখাইনে রোহিঙ্গা নিপীড়ন শুরুর আগে সেখানে ৭ লাখ ৬৭ হাজার ৩৮ জন রোহিঙ্গা ছিল। বর্তমানে রাখাইনে মাত্র ১০ শতাংশ অর্থাৎ ৭৯ হাজার ৩৮ জন রোহিঙ্গা রয়েছেন। জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক সমন্বয়ক সংস্থা (ইউএনওসিএইচএ) ও রাখাইনের স্থানীয় প্রশাসনের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে মিয়ানমারের স্থানীয় দৈনিক দি ইরাবতি এক প্রতিবেদনে শনিবার এ তথ্য জানিয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ