সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

১৮ জানুয়ারি মাঠে গড়াচ্ছে প্রিমিয়ার ফুটবল লিগ

স্পোর্টস রিপোর্টার : ঘরোয়া ফুটবলের সর্বোচ্চ আসরটি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ফুটবল লিগের খেলা আগামী ১৮ জানুয়ারি থেকেই মাঠে গড়াতে যাচ্ছে। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ফুটবল লিগের  (বিপিএল) খেলাগুলো হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে পদ্ধতিতে ১৩ দলের অংশগ্রহনে দেশের ছয়টি ভেন্যুতে অনুষ্টিত হবে। প্রাথমিকভাবে আটটি ভেন্যুতে খেলা হওয়ার কথা থাকলেও ভেন্যুর সংখ্যা কমিয়ে আনা হয়েছে। ৮টি থেকে ৬টি ভেন্যুতে গড়াচ্ছে এগারতম আসরটি।গতকাল শনিবার বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে)ভবনে বিকেলে পেশাদার লিগ কমিটির সভায় ক্লাব কর্মকর্তাদের সম্মতিতেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্তটি এসেছে।৬টি ভেন্যুতে বিপিএলের ১৫৬ টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। ভেন্যুগুলো হলো: ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম, ময়মনসিংহের রফিক উদ্দিন ভূইয়া স্টেডিয়াম, গোপালগঞ্জের শেখ মনি স্টেডিয়াম, নীলফামারীর শেখ কামাল স্টেডিয়াম, নোয়াখালীর শহীদ ভুলু স্টেডিয়াম,সিলেটের কেন্দ্রীয় জেলা স্টেডিয়াম। দুটি ভেন্যু (ফরিদপুর ও চট্টগ্রাম) বাতিল হয়েছে ক্লাবগুলোর অসম্মতিতে।বৈঠকে ক্লাবগুলোর দাবি জুনের মধ্যেই লিগ শেষ করতে। কারণ বিদেশি-স্থানীয় খেলোয়াড়দের সঙ্গে জুন মাস পর্যন্ত চুক্তি আছে ক্লাবগুলোর। লিগ পেছালে বড় আর্থিক ক্ষতিসহ দলবদলেও সংকট তৈরি হতে পারে। সেই কথা মাথায় রেখে আলোচনা করে জুলাইয়ের দ্বিতীয় সপ্তাহের মধ্যে এই আসর শেষ করার জন্য ফিক্সচার তৈরি করতে চলেছে বাফুফে।

বাফুফে সূত্রে জানা যায়, বিপিএলের সকল ভেন্যুর বরাদ্দ নিশ্চিত করেছে ফেডারেশন। তার মধ্যে পাঁচটি ভেন্যুর সংস্কার কাজ সম্পন্ন হয়ে গেছে। এর মধ্যে ময়মনসিংহ ও গোপালগঞ্জ স্টেডিয়াম আছে। নির্দিষ্ট সময়ের আগেই ভেন্যুর সংস্কার থেকে যাবতীয় কাজ শেষ হয়ে খেলার উপযোগী হবে বলে আশ্বাস কমিটির।প্রথমিকভাবে খসড়া ফিক্সচারে সপ্তাহে তিন দিন চারটি করে ম্যাচ রেখে আগস্ট পর্যন্ত করা হয়েছিল। তবে, জুন-জুলাইয়ের মধ্যে শেষ করতে সপ্তাহে চারদিন ম্যাচ রাখা হচ্ছে। শুক্রবার-শনিবার-রোববারসহ যে কোন একদিন মাথায় রেখে ফিক্সচার জানানো হবে বলে জানানো হয়।সার্বিক বিষয়ে পেশাদার লিগ কমিটির চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম মুর্শেদী জানান, ক্লাবগুলোর সম্মতিতে আমরা নির্দিষ্ট সময়ে শুরু করে জুলাইয়ে দ্বিতীয় সপ্তাহের মধ্যে শেষ করতে চাই। তিন দিনের জায়গায় চার দিন ম্যাচ হবে। ফিক্সচার দ্রুত জানিয়ে দেয়া হবে।এসময় বৈঠকের শুরুতে খুলনা-৪ আসন থেকে সাংসদ নির্বাচিত হওয়ার জন্য কমিটির চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম মুর্শেদীকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ক্লাব কর্মকর্তারা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ