শুক্রবার ০৩ জুলাই ২০২০
Online Edition

ভাতিজার দায়ের কোপে চাচা হাসপাতালে

লালমনিরহাট সংবাদদাতা, ২০ জানুয়ারি: লালমনিরহাটে হিন্দু সম্প্রদায়ের ভাতিজা কর্তৃক জ্যাঠোকে দা' দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক জখমের ঘটনা ঘটেছে। জানা  গেছে, লালমনিরহাট সদর উপজেলার গোকুন্ডা ইউনিয়নের বেড়পাঙ্গা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, গত ১৮ জানুয়ারি, বাড়ীর সীমানা বেড়াকে কেন্দ্র করে প্রফুল্ল চন্দ্র (৬০)-কে ছোট ভাই অমুল্য চন্দ্র রায় (৫০) এর ছেলে মহেন্দ্র চন্দ্রের নেতৃত্বে পরিমল, মনোরঞ্জন বেদম মারপিট করে। একপর্যায়ে পাশে পড়ে থাকা দা হাতে তুলে নিয়ে মহেন্দ্র চন্দ্র (২২) তার জ্যাঠো প্রফুল্ল চন্দ্রের মাথায় ও কাঁধে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। এতে প্রফুল্ল চন্দ্র (৬০) মাটিতে লুটিয়ে পড়লে প্রচুর রক্ত খরন হতে থাকলে প্রতিবেশিরা তাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। এলাকাবাসী জানায়, বাড়ীর সীমানাকে কেন্দ্র করে এ ঘটনার সূত্রপাত, তবে এর আগেও একাধিকবার একই কারণে প্রফুল্ল চন্দ্র কে তার ভাই ও ভাতিজারা লাঞ্চিত ও মারপিট করেছিল এবং এই সকল অপ্রীতিকর ঘটনার বিচার শালিশও করেছিল গোকুন্ডা ইউপি চেয়ারম্যান। আহত প্রফুল্ল চন্দ্র  বর্তমানে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালের ৩য় তলায় ৬৭ নং ওয়ার্ডের ৩৭ নং বেডে চিকিৎসাধীন রয়েছে। শনিবার সকালে সরেজমিনে হাসপাতালে গেলে প্রফুল্ল চন্দ্রের মাথায় ও কাঁধে একাধিক খুন জখমের আঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ