সোমবার ১০ আগস্ট ২০২০
Online Edition

জমি জমা নিয়ে বিরোধকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের গাছ কেটে সাবাড়

কাপাসিয়া (গাজীপুর) সংবাদদাতা: জায়গা-জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিবেশীর প্রায় লাখ টাকা মূল্যের বিভিন্ন জাতের গাছ কেটে প্রতিপক্ষ  ব্যাপক ক্ষতিসাধন করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলার টোক ইউনিয়নের সুলতানপুর গ্রামে। এব্যাপারে মোঃ মামুন খাঁ বাদী হয়ে গত ২০ আগস্ট মোঃ মুর্শিদ গংদের বিরুদ্ধে কাপাসিয়া থানায় মামলা দায়ের করলেও তারা বীরদর্পে এলাকা চড়ে বেড়াচ্ছে বলে বাদীর দাবী। মামলার বিবরনে জানাযায়, উপজেলার টোক ইউনিয়নের সুলতানপুর গ্রামের মৃত- মমতাজ উদ্দিন খাঁ তার পৈত্রিক ও ক্রয় সূত্রে সুলতানপুর মৌজাস্থিত আরএস ৬৬ নং খতিয়ানে আরএস ২৬৭ ও ৩০৩ নং দাগে স্থানীয় মাপে দুই বিঘা জমি দীর্ঘদিন শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোগদখলে থাকাবস্থায় ২০০৭ সালে মারা যান। মমতাজ উদ্দিন মৃত্যুর পূর্বে তার দুই পুত্র মোঃ মামুন খাঁ ও মোঃ সুমন খাঁ’কে হেবা ঘোষনাপত্র মূলে রেজিস্ট্রি করে দিলে তারা উভয়ে কারো বিনাবাধায় শান্তিপূর্ণ ভাবে এযাবত ভোগ দখল করতে থাকে। তাদের জায়গাটি বাড়ি থেকে কিছুটা দূরে এবং বিবাদীদের বাড়ির নিকটে হওয়ায় তারা সব সময় পারিবারিক ভাবে সবার সাথে নানাবিধ শত্রুতা পোষণ করে আসছে। এর জের ধরে গত ১৯ আগস্ট সোমবার সকাল ৯টার দিকে একই গ্রামের রশিদের পুত্র মোঃ মুর্শিদের (২৮) নেতৃত্বে তোতা মিয়া, সোহেল, আঃ রাশিদ, উজ্জ্বল, রাশিদ, রাজু মিয়া, সুফিয়া খাতুন, বকুলা খাতুন, মোর্শেদা খাতুন, জহুরা থাকুন সহ আরো ৩/৪ জন সঙ্গবদ্ধ ভাবে দা, কুড়াল, শাবল ইত্যাদি ধারালো অস্ত্র নিয়ে বেআইনি ভাবে উক্ত জায়গা-জমিতে হামলা চালায়। এসময় তারা ওই জমিতে রোপনকৃত ৫’শ টি মেহগনি গাছের চারা, ৬০টি কলা গাছ, ৪০টি কলার ছড়া ও ১৫০টি বাঁশ কেটে নিয়ে যায়। এতে বাদীর ৭৫ হাজার টাকার ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে।
খবর পেয়ে বাদী মামুন খাঁ টোক নয়ন বাজার হতে ঘটনাস্থলে গিয়ে বিবাদীদের বাধা দিলে তারা মামুনের উপর হামলা চালায়। হামলাকারী ২নং বিবাদীর হুকুমে ১নং বিবাদী মোঃ মুর্শিদ উত্তেজিত হয়ে মামুনকে হত্যার উদ্দেশ্যে তার গলা চেপে ধরে শ্বাসরোধ করার চেষ্টা করে। এসময় অন্যান্য বিবাদীরা লাঠিসোটা নিয়ে তাকে এলোপাথারীভাবে মারধর করায় তার শরীরের বিভিন্নস্থানে বেদনাদায়ক নীলাফুলা জখম হয়। আইন অমান্যকারী বিবাদীরা তাকে প্রতিনিয়ত হুমকি দিয়ে বেড়াচ্ছে। সুযোগ পেলে তারা যে কোন ধরনের ক্ষয়-ক্ষতি করবে বলে আশংকা। তাই অনতিবিলম্বে বিবাদীদের গ্রেফতার করে তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহন করার দাবী জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ