ঢাকা, সোমবার 21 September 2020, ৬ আশ্বিন ১৪২৭, ৩ সফর ১৪৪২ হিজরী
Online Edition

সংসদের চতুর্থ অধিবেশন শুরু আজ

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: আজ শুরু হচ্ছে একাদশ জাতীয় সংসদের চতুর্থ অধিবেশন।তবে, এই অধিবেশনে সংসদে থাকছেন না কোন বিরোধীদলীয় নেতা। 

বিকাল ৫টায় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে এ অধিবেশন শুরু হবে।

এর আগে বিকাল ৪টায় সংসদের কার্য উপদেষ্টা কমিটির বৈঠকে অধিবেশনের মেয়াদ ও কার্যসূচি চূড়ান্ত হবে।

তবে সাংবিধানিক বাধ্য-বাধকতার কারণে ডাকা এই অধিবেশন সংক্ষিপ্ত হবে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

সূত্র মতে, সংসদ অধিবেশনের প্রথম দিনেই চলতি সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা, সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের মৃত্যুতে শোক প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা শেষে রেওয়াজ অনুযায়ী অধিবেশন মুলতবি করা হবে।

পরদিন থেকে যথারীতি অধিবেশন চলবে। চলতি অধিবেশনে কাস্টমস বিল-২০১৯, বাংলাদেশ সুগারক্রপ গবেষণা ইন্সটিটিউট বিল-২০১৯, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইন্সটিটিউট (সংশোধন) বিল-২০১৯, বাংলাদেশ শিল্প কারিগরি সহায়তা কেন্দ্র বিল-২০১৯ এবং বাংলাদেশের পতাকাবাহী জাহাজ (সুরক্ষা) বিল-২০১৯ নিয়ে আলোচনা ও পাস হওয়ার কথা রয়েছে।

এদিকে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের মৃত্যুর কারণে শূন্য হওয়া বিরোধীদলীয় নেতার পদ এখনও পূরণ হয়নি। ওই পদ নিয়ে বিরোধী দল জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্যরা দ্বিধাবিভক্ত হয়ে পড়েছেন।

নিজেকে সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা করার জন্য স্পিকারের কাছে চিঠি দিয়েছেন পার্টির বর্তমান চেয়ারম্যান জিএম কাদের।

সেই চিঠির যৌক্তিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে তা গ্রহণ না করার অনুরোধ জানিয়ে পরদিনই স্পিকারকে আরেকটি চিঠি দিয়েছেন বিরোধীদলীয় উপনেতা রওশন এরশাদ। এ অবস্থায় বিরোধীদলীয় নেতা ছাড়াই নতুন অধিবেশন শুরু হচ্ছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, তাদের চিঠি নিয়ে আইন-কানুন খতিয়ে দেখা হবে। আর বিরোধীদলীয় নেতা কে হবেন তা কার্যপ্রণালি বিধিতে বলা আছে। সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিরোধী দলের মধ্যে যে সংকট তৈরি হয়েছে তা তারা নিজেরাই সমাধান করবেন বলে তিনি আশা প্রকাশ করেনে।

ডিএস/এএইচ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ