বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪
Online Edition

ভারতের কাছে হার : বাজে সিদ্ধান্ত গ্রহণকেই দায়ী করলেন পাকিস্তান কোচ 

স্পোর্টস রিপোর্টার: বিস্ময়ক হারই দেখেছে পাকিস্তান। দুই ইনিংস মিলিয়ে ৩৫ ওভার পর্যন্ত ম্যাচটা ঝুঁকে ছিল পাকিস্তানের দিকে। শেষ ৬ ওভারে ৪০ রান দরকার ছিল। আশার আলো হয়ে জ্বলছিলেন রিজওয়ান। কিন্তু বুমরার দুর্দান্ত ডেলিভারিতে তিনি বোল্ড হতেই পথ হারায় পাকিস্তান। বলা যায় ঠা-া মাথার বুমরার বোলিং নৈপুণ্য ভারতকে জয়ের পথে এনেছে। এমন হারের পর হতাশা গোপন করেননি পাকিস্তান কোচ গ্যারি কারস্টেন। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে টানা দ্বিতীয় হারের পর পাকিস্তান কোচের কাছে সাংবাদিকের প্রশ্ন ছিল ম্যাচটা তারা কোন জায়গায় হেরেছে। জবাবে তিনি বাজে সিদ্ধান্ত গ্রহণকে দায়ী করেছেন, ‘হারটা হতাশাজনক। আমরা আসলে বাজে সিদ্ধান্ত গ্রহণেই ম্যাচটা হেরেছি। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে প্রথমবার ভারতকে অলআউট করেছে পাকিস্তান, তাও আবার মাত্র ১১৯ রানে। কিন্তু সেই রান করতে গিয়েই ঘাম ছুটেছে পাকিস্তানের। কারস্টেনও জানালেন, রানটা কম হলেও সেটা তাড়া করা মোটেও সহজ ছিল না, ‘জানতাম ১২০ রান তাড়া মোটেও সহজ হবে না। তার পরেও ৭২ রানে ২ উইকেট থাকা পর্যন্ত ম্যাচটা আমাদের হাতেই ছিল। কিন্তু সেটা পার করতে না পারাটা আমাদের জন্য ছিল হতাশার।’

ম্যাচের টার্নিং পয়েন্ট ছিল বুমরার বলে রিজওয়ানের আউট। ৩১ বলে ৪৪ রানে ব্যাট করছিলেন পাকিস্তানের এই ব্যাটার। ঠিক তখন বুমরার নতুন স্পেলের প্রথম বলে স্লগ করতে গিয়ে আউট হয়েছেন তিনি। তাতে টানা দ্বিতীয়বার ম্যাচ সেরা হয়েছেন ভারতের বুমরা। ম্যাচের পর দলের শান্তভাবে টিকে থাকাকেই কৃতিত্ব দিচ্ছেন তিনি, বড় ইতিবাচক দিকটি হচ্ছে শান্ত থাকা। সকালে আমাদের ব্যাটিংয়ের সময় উইকেটে অনেক সহায়তা ছিল। আমাদের বোলিংয়ের সময় আকাশ পরিষ্কার। বলও সেভাবে সিম মুভমেন্ট পাচ্ছিল না। তাই আমাদের আরও নিখুঁত ও ধারাবাহিক হতে হতো। তাই আমরা দলীয়ভাবে শান্ত থেকেই নিজেদের কাজটা করেছি। এমনটা করতে পেরে দারুণ খুশি।’ 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ